শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৪৩
প্রিন্ট করুন printer

হলুদে চালের গুড়া ও রঙ মেশানোর অপরাধে ব্যবসায়ীকে জরিমানা

হলুদে চালের গুড়া ও রঙ মেশানোর অপরাধে ব্যবসায়ীকে জরিমানা

ঝিনাইদহে গুড়া হলুদে চালের গুড়া ও রঙ মেশানোর অপরাধে এক ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

আজ দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলার নলডাঙ্গা সড়কে এ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মন্ডল।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে ওই এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময় চালের গুড়া ও রঙ মেশানোর সময় হাতে নাতে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলামকে আটক করা হয়। পরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এ ৪২ ধারা অনুযায়ী ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলামকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে পৌরসভার স্যানিটারি ইন্সপেক্টর আলমগীর হোসেনসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:০৬
প্রিন্ট করুন printer

‘প্রতিবন্ধীরা পরিবারের সম্পদে পরিণত হচ্ছে’

জামালপুর প্রতিনিধি

‘প্রতিবন্ধীরা পরিবারের সম্পদে পরিণত হচ্ছে’

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি বলেছেন, একটা সময় কোন পরিবারে প্রতিবন্ধী শিশুর জন্ম হলে বোঝা মনে করা হতো, লজ্জায় তাকে সমাজ থেকে লুকিয়ে রাখতো পরিবারের সদস্যরাই। আর গরীব ঘরে কোন প্রতিবন্ধী শিশুর জন্ম হলে তাকে দিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করা হতো। কিন্তু আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কল্যাণে প্রতিবন্ধীরা এখন পরিবারের বোঝা নয়, সম্পদে পরিণত হচ্ছে। দেশব্যাপী প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষায়িত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার পাশাপাশি, কর্মসংস্থানেরও ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা।

শুক্রবার জামালপুরে সুইট বুদ্ধি প্রতিবন্ধী অটিস্টিক বিদ্যালয় পরিদর্শনকালে মির্জা আজম এসব কথা বলেন। জামালপুর সুইট বুদ্ধি প্রতিবন্ধী অটিস্টিক বিদ্যালয়ের সভাপতি অ্যাডভোকেট এইচ আর জাহিদ আনোয়ারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সুইট বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জহায়েরুল ইসলাম মামুন, মহাসচিব ডা. অজন্তা রানী সাহা, অজয় কুমার দে প্রমুখ। 

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:০৩
প্রিন্ট করুন printer

চাঁদপুরে আগুনে পুড়ে স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু

চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুরে আগুনে পুড়ে স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু
শিখা রানী মজুমদার

চাঁদপুরের হাইমচরে শিখা রানী মজুমদার (৫৫) আগুনে পুড়ে মারা গেছেন। শুক্রবার ভোরে পশ্চিম চরকৃষ্ণপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে। নিহত শিখা রানী পেশায় স্কুল শিক্ষিকা ছিলেন। দুপুরে নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য চাঁদপুর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে হাইমচর থানা পুলিশ। এখনও কেউ বাদী হয়ে থানায় মামলা করেনি।
স্থানীয়রা জানান, শিখা রানী  কি কারণে তিনি আগুনে পুড়ে মারা গেছেন তা জানাতে পারছেন না স্বজন ও প্রতিবেশীরা। পুলিশ আগুনে পুড়ে মৃত্যুর ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত শুরু করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাইমচর কিন্ডারগার্টেন নামে একটি স্কুলের শিক্ষিকা ছিলেন শিখা রানী। শুক্রবার ভোরে বাড়ির উঠোনে গায়ে আগুন লাগে শিখা রানীর। তার চিৎকারে লোকজন ছুটে যান। কিন্তু ততক্ষণে তার দেহ আগুনে পুড়ে যায়। নিহতের বড় ভাইয়ের স্ত্রী সবিতা রানী মজুমদার জানান, রাতে একসঙ্গে তারা ঘুমিয়ে ছিলেন। ভোরে অন্যদের ডাক চিৎকারে তার ঘুম ভাঙে। এ সময় বাড়ির উঠোনে তিনি ননদের পুড়ে যাওয়া দেহ দেখতে পান।

স্থানীয়রা জানায়, পঞ্চাশোর্ধ ও অবিবাহিত শিখা রানী বাবার বাড়িতেই থাকতেন। সেখানে বড়ভাই মৃত শক্তি মজুমদারের স্ত্রী সবিতা রানীর সঙ্গেই তিনি বসবাস করতেন। সেখানে তারা দুুজন ছাড়া আর কেউ থাকতেন না। শিখা রানীর কারও সঙ্গে শত্রুতা ছিল কি না তাদের জানা নেই। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন চাঁদপুর অঞ্চলের পরির্দশক কবির হোসেন জানান, ঘটনাস্থল থেকে ফরেনসিক রিপোর্ট তৈরি করতে প্রয়োজনীয় আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান জানান, রহস্যজনক এই মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হতে পুলিশ তদন্ত কাজ শুরু করেছে।  দ্রুত সময়ের মধ্যে আগুনে মৃত্যুর বিষয়টি তদন্ত সংশ্লিষ্টরা উদঘাটন করতে পারবে।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন

 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

'কৃষকদের উৎসাহ যোগাতে প্রণোদনা অব্যাহত রেখেছে সরকার'

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

'কৃষকদের উৎসাহ যোগাতে প্রণোদনা অব্যাহত রেখেছে সরকার'

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো: মেসবাহুল ইসলাম বলেন, সরকার কৃষকদের উদ্বুদ্ধকরণে এ অঞ্চলসহ সারাদেশে কৃষকদের সূর্যমুখী ও অন্যান্য শস্য উৎপাদনে ব্যাপক কৃষি প্রণোদনা প্যাকেজের মধ্য দিয়ে সহায়তা করে যাচ্ছে। যাতে তারা (কৃষক) এটি করতে আরো আগ্রহী হন সে ব্যাপারে সাপোর্ট অব্যাহত থাকবে।

শুক্রবার দুপুরে সূর্যমূখির চাষ পরিদর্শন শেষে মাঠ দিবসের কর্মসূচিতে এসব কথা বলেন তিনি।

কুড়িগ্রামের চরাঞ্চলে বিগত বছরগুলোর চেয়ে অনেক বেড়েছে সূর্যমুখীর চাষ। এবছর ২০০ হেক্টর জমিতে সূর্যমুখীর চাষ করে ৩২ কোটি টাকা বিক্রির আশা করছেন এ অঞ্চলের কৃষকরা। 

জেলা কৃষি বিভাগের মতে, তিস্তা, ধরলা, ব্রহ্মপুত্রের চরে সুর্যমুখী চাষ সম্প্রসারণ করে চরের কৃষকের ভাগ্য বদলানোর পাশাপাশি দেশের আমদানী নির্ভর ভোজ্য তেলের অনেকটাই যোগান দেয়া সম্ভব। ১৬টি নদ-নদী বেষ্টিত জেলা যার ৫ শতাধিক চর রয়েছে। কুড়িগ্রামে বিগত বছরগুলোর চেয়ে এ বছর ব্যাপক সূর্যমুখীর চাষ করা হয়েছে। চরের পতিত জমিতে সূর্যমুখী চাষ করে একদিকে যেমন আয় হবে তেমনি কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে তাদের। অন্যদিকে পতিত অনাবাদি জমিকে কাজে লাগিয়ে লাভবান হচ্ছেন তারা। 

গত বছর জেলায় ২০ হেক্টর জমিতে সূর্যমুখীর আবাদ হলেও এবার আবাদ হয়েছে ২০০ হেক্টর জমিতে। প্রতি হেক্টরে ২ মে.টন সূর্যমুখী তেল বীজ উৎপাদন হয়। বর্তমানে প্রতি কেজি তেল বীজের দাম ৮০ টাকা। প্রতি হেক্টর জমিতে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকার তেল বীজ বিক্রি হবে বলে কৃষিবিভাগের প্রত্যাশা। সে হিসেবে এবার জেলায় কমপক্ষে ৩২ কোটি টাকার সুর্যমুখীর তেলবীজ বিক্রির আশা কৃষকদের। 

রাজস্ব ফলোআপ ও প্রণোদনা কর্মসূচি-২০২১ এর আওতায় সূর্যমুখী আবাদ সম্প্রসারণের লক্ষ্যে কুড়িগ্রামে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে কুড়িগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের চর মাধবরাম গ্রামে এ মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো: মেসবাহুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মো: আসাদুল্লাহ, রংপুর কৃষি  সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ খন্দকার আব্দুল ওয়াহেদ, কুড়িগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো: মঞ্জুরুল হক প্রমুখ। 


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:৪৯
প্রিন্ট করুন printer

সৈয়দপুরে বিএনপি নেতাকে আটকের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নীলফামারী প্রতিনিধি

সৈয়দপুরে বিএনপি নেতাকে আটকের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য ও পৌর বিএনপির আহবায়ক শেখ বাবলুকে সাদা পোষাকে পুলিশ পরিচয়ে আটক করা হয়েছে। নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে আওয়ামী লীগ প্রভাব খাটাচ্ছে বলে বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয় বিএনপি।

শুক্রবার সকালে সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা বিএনপির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। এতে বক্তব্য রোখেন জেলা বিএনপির আহবায়ক অধ্যক্ষ আবদুল গফুর সরকার, বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক অ্যাড. ওবায়দুর রহমান ও মেয়র প্রার্থী বিএনপি নেতা রশিদুল হক সরকার।

বক্তারা বলেন, ভোর রাতে শহরের নয়াটোলা শ্বশুরবাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে বিএনপি ওই নেতাকে । তার নামে থানায় বা আদালতে কোন মামলা নেই। ২৮ তারিখের নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশকে নষ্ট ও ভোটারদের মাঝে ভীতি সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যেই প্রশাসনকে ব্যবহার করছে আওয়ামী লীগ নেতারা। শহরের নৌকা মার্কার পথসভায় স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের বক্তব্যেই তা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খানের জানান, শহরের গোলাহাটে নির্বাচনী প্রচারের সময় আওয়ামী লীগ-জাপার মধ্যে সংঘর্ষের মামলায় তাকে আটক করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:৪২
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:২০
প্রিন্ট করুন printer

কালীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২, আহত ৩

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

কালীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২, আহত ৩

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ-কোটচাঁদপুর সড়কের পাতিবিলা নামক স্থানে তিন মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে শিমুল বিশ্বাস (২৮) নামে এক যুবকসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও চারজন। এরমধ্যে দুইজনের অবস্থা আশংকাজনক।  

শুক্রবার বিকেল ৪ টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিমুল বিশ্বাস কোটচাঁদপুর পৌরসভাধীন দুধসর গ্রামের হরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের ছেলে। আহতরা হলেন কালীগঞ্জ উপজেলার বেথুলী গ্রামের দুখীরাম সাহা, আলী হোসেন ও তার ছেলে সজীব হোসেন।

কালীগঞ্জ উপজেলা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের স্টেশন অফিসার শেখ মামুনুর রশিদ বলেন, নিহত শিমুল বিশ্বাস মোটরসাইকেল যোগে কালীগঞ্জ থেকে কোটচাঁদপুরের দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে পাতবিলা তেলপাম্পের সামনে পৌছালে কালীগঞ্জগামী একটি যাত্রীবাহি বাস ক্রসের সময় বাসের পিছন থেকে একটি মোটরসাইকেল বাসটিকে অভারটেকিং করতে যায়। ফলে দুই মোটসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় কালীগঞ্জের দিক থেকে আসা অন্য একটি মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই দুই মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে শিমুলসহ ২ জন মারা যায়। এ সময় আহত হয় আরো তিন মোটরসাইকেল আরোহী।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর