শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ জুন, ২০২১ ১৭:৩৮
প্রিন্ট করুন printer

কাদের মির্জার চোখ তুলে নিয়ে আসা আমার মায়ের নির্দেশ: মঞ্জু

নোয়াখালীে প্রতিনিধি

কাদের মির্জার চোখ তুলে নিয়ে আসা আমার মায়ের নির্দেশ: মঞ্জু
মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু
Google News

সেতুমন্ত্রীর ভাগ্নে ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু বলেছেন, আমার মায়ের নির্দেশ হল তার (কাদের মির্জা) চোখগুলো তুলে নিয়ে আসা। আজকে রাতের মধ্যে প্রশাসন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে বুঝবেন আন্দোলন কত প্রকার ও কি কি। 

সোমবার নিজের ফেসবুক অ্যাকউন্ট থেকে লাইভে এসে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি বলেন, ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের সময় শেষ হয়েছে। কাদের মির্জা ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের দাবিতে আমরা অবরোধ ডেকেছিলাম। কিন্তু প্রশাসন কাদের মির্জাসহ তার কোন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেনি। তাই এই অবরোধ সর্বাত্মকভাবে আজ রাত ১২টা পর্যন্ত চালিয়ে যাবেন। যদি আজ রাত ১২টার মধ্যে এটার সুরাহা না হয়, তাহলে এখানে আরো কঠিন থেকে কঠিন কর্মসূচি দেওয়া হবে।  

মঞ্জু বলেন, এখানে আরও তীব্র অবরোধ কর্মসূচি চলবে। আন্দোলনের মুখে এই অপশক্তি ভেসে যাবে। এরপরে কর্মসূচি কি হবে, তা সময় মতো জানানো হবে। শিবিরের ৭টা ছেলেকে আপনার নেতৃত্বে খুন করা হয়েছে। অথচ আপনি বলেন, শিবিরের ছেলেরা ভালো। তাহলে খুন করিয়েছেন কেন।  

কাদের মির্জার ছোট ভাই শাহদাতকে উদ্দেশ্য করে তিনি আরো বলেন, আপনার ছোট ভাই শাহদাত সালিশ বাণিজ্য করে ওই এলাকার হাজার হাজার মানুষকে অতিষ্ট করে তুলেছে। আপনি অন্যকে ভূমিদস্যু বলেন। আপনার ভাইয়ের একশ একর ভূমি কোথা থেকে এলো। তারতো কিছুই ছিল না।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীদের একটা অংশ আপনার সাথে কেন? আপনার সাথে তো আওয়ামী লীগের কোন নেতাকর্মী নেই। আছে মাদক ব্যবসায়ী ইয়াবা ব্যবসায়ী। মনে করেছেন সবাইকে হামলা করে, আক্রমণ করে আপনি এখানে যে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছেন। আপনাকে কেউ ছেড়ে দিবে না। ব্যক্তিগত ভাবে আমি আমার কথা বলি, আমার মায়ের নির্দেশ হল তোর (কাদের মির্জা) চোখগুলো তুলে নিয়ে আসা। আজকে রাতের মধ্যে প্রশাসন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে বুঝবেন আন্দোলন কত প্রকার ও কি কি। একদিন কোম্পানীগঞ্জের মানুষের আদালতে তোমার বিচার হবেই হবে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মির্জা তোমাকে দেখিয়ে দিবে আন্দোলন কত প্রকার ও কি কি। তুই আমাদের কোনো আত্মীয় নয়। তোকে ওই খাতা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তোর মত বিকৃত রুচির মানুষ আমাদের আত্মীয় হতে পারে না।  

এ সময় সেতুমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে মঞ্জু বলেন, ভাইয়ের প্রতি এতো দরদ হলে তাকে পাগলা গারদ বা কোথাও নিয়ে আটকান। নয়তো মানুষ পিটিয়ে মেরে ফেললে এটার দায় দায়িত্ব কেউ নিবে না।  

উল্লেখ্য, গত শনিবার (১২ জুন) দুপুর ১২টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র ও সেতুমন্ত্রীর ভাগনে মাহবুবুর রশিদ মঞ্জু নিজের ফেসবুকে লাইভে এসে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কোম্পানীগঞ্জে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা সর্বাত্মক অবরোধ কর্মসূচি পালনের ডাক দেন। কাদের মির্জার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নেতা বাদলের ওপর হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে এই অবরোধ ডাকা হয়। তবে বাদলের ওপর হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি। মিজানুর রহমান বাদল সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের অনুসারী। আর কাদের মির্জা ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর