২৫ জুলাই, ২০২১ ০৯:১৫

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নারী শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নারী শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আযহারুল ইসলাম

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জের সখিপুরে ৪৪নং তারাবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আযহারুল ইসলাম বেপারীর (৫৬) বিরুদ্ধে এক সহকারী শিক্ষিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার (২৪ জুলাই) প্রধান শিক্ষক বিরুদ্ধে সখিপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষিকা।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ওই সহকারী শিক্ষিকার সঙ্গে প্রধান শিক্ষক আযহারুল ইসলামের দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। গত ২২ জুলাই বিকেলে প্রধান শিক্ষক আযহারুলের স্ত্রী ও সন্তান তার শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে যায়। বাড়ি ফাঁকা থাকায় রাতে প্রধান শিক্ষক আযহারুল ওই শিক্ষিকাকে ফোন করে তার বাড়িতে আসতে বলেন।

আযহারুলের কথামতো রাত ১০টার দিকে ওই শিক্ষিকা সেখানে আসেন। তখন বিয়ের আশ্বাস দিয়ে একটি কক্ষে ওই শিক্ষিকাকে ধর্ষণ করেন আযহারুল। পরে বিয়ের কথা বললে আযহারুল ওই শিক্ষিকাকে চুপচাপ বাড়ি চলে যেতে বলেন। তবে ওই শিক্ষিকা বিয়ে না করা পর্যন্ত বাড়ি থেকে যেতে অস্বীকৃতি জানালে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়।

একপর্যায়ে শিক্ষিকাকে জোর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয়রা টের পেয়ে তাদের হাতেনাতে ধরে ফেলে। পরে শিক্ষিকাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয় ওই প্রধান শিক্ষক ও তার আত্মীয়রা।

এ ঘটনায় দুইদিন পরে গতকাল শনিবার (২৪জুলাই) প্রধান শিক্ষক আযহারুল ইসলাম বেপারীকে আসামী ক‌রে ধর্ষণের মামলা দা‌য়ের করেন ওই নারী। ঘটনার পর থে‌কে পলাতক রয়েছেন প্রধান শিক্ষক আজাহারুল ইসলাম বেপারী।

স‌খিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ওই নারী‌র অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা নেওয়া হ‌য়ে‌ছে। ভুক্তভোগী শিক্ষিকার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আর মামলার অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আযহারুলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর