১৮ মে, ২০২২ ২১:২৯

ভাতের মাড় ঢেলে স্ত্রীকে ঝলসে দিল পাষণ্ড স্বামী

কালিয়াকৈর প্রতিনিধি

ভাতের মাড় ঢেলে স্ত্রীকে ঝলসে দিল পাষণ্ড স্বামী

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার নাশুলাই এলাকায় স্ত্রীর শরীরে গরম ভাতের মাড় ঢেলে ঝলসে দিয়েছে পাষণ্ড স্বামী রুবেল মিয়া। অভিযোগ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ৫ বছর আগে কালিয়াকৈর উপজেলা টালাবহ এলাকার সাইজ উদ্দিনের মেয়ে শাহিদা আক্তারের সাথে নামাশুলাই এলাকার নির্ঘুম বাদশাহর ছেলে রুবেল মিয়া সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ে হওয়ার কিছুদিন পর থেকেই যৌতুকের জন্য স্বামী বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন শুরু করে। এর মধ্যে কয়েকবার বিচার সালিশ হয়েছে। গত কয়েক মাস আগে মীমাংসা করে স্বামীর বাড়িতে যান ওই গৃহবধূ।

এরই জের ধরে গত তিনদিন আগে স্বামী রুবেল মিয়া তার স্ত্রীর বাপের কাছ থেকে টাকা আনতে বলেন। স্ত্রী টাকা আনতে রাজি না হওয়ায় দুজনের মধ্যে বিরোধ চলছিল। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে স্ত্রী ভাত রান্না করছিল। এ সময় স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে স্বামী গরম ভাতের মাড় স্ত্রীর শরীরে ঢেলে দেয়। এ সময় তার স্ত্রীর শরীরের বিভিন্ন অংশে ঝলসে যায়। পরে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজনের এগিয়ে আসেন। 

খবর পেয়ে মেয়ের বাবা সাহাজউদ্দিন তার মেয়েকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার একটি হাসপাতালে রেফার্ড করেন চিকিৎসকরা। এ ঘটনায় বুধবার সকালে মেয়ের বাবা সাইজ উদ্দিন বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মেয়ের বাবা সাইজুদ্দিন জানান, যৌতুকের জন্য বিভিন্ন সময় আমার মেয়েকে নির্যাতন করতো। গত তিনদিন আগে তিন হাজার টাকা আমার মেয়েকে দিতে বলে। এই নিয়ে মেয়ের সাথে ঝগড়া হয় মঙ্গলবার দুপুরে গরম ভাতের মাড় ঢেলে আমার মেয়ের শরীর ঝলসে দিয়েছে। আমি তার বিচার চাই। তবে স্বামী রুবেল মিয়া জানান, আমার বাচ্চাকে মারপিট করছিল। এ সময় আমি ভাতের পাতিল ছুড়ে ফেলার সময় তার শরীরে গরম ভাতের মাড় লেগেছে।
 
কালিয়াকৈর থানার ডিউটি অফিসার (এসআই) রায়হান আকন্দ জানান, ভাতের মাড় ঢালার ঘটনায় মেয়ের বাবা থানার একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর