৩ জুলাই, ২০২২ ১৬:৪২

পাঁচ বছরেও সংস্কার হয়নি পুলের, চাঁদা তুলে সাঁকো নির্মাণ

মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি:

পাঁচ বছরেও সংস্কার হয়নি পুলের, চাঁদা তুলে সাঁকো নির্মাণ

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে পাঁচ বছরেরও অধীক সময় ধরে অকেজো হয়ে রয়েছে একটি জনগুরুত্বপূর্ণ পুল। নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের রফিজ স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে ঘোপের খালের ওপর গুলিশাখালী ও পিসি বারইখালী গ্রামের সংযোগ রক্ষাকারি এ পুলটি সংস্কারের অভাবে এখন শুধুই স্মৃতি। সুবিধাভোগী শত শত মানুষ পড়েছেন বিপাকে।

বিপদগ্রস্ত স্থানীয় সচেতন মানুষ ও ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকরা চাঁদা তুলে সেখানে এখন বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করা হয়েছে। ১৪০ ফুট দীর্ঘ ওই সাঁকোটি দেখলে অনেকেরই অন্তরাত্মা কেপে ওঠে। কিন্তু নিরুপায় হয়ে বহু শিশু-কিশোর শিক্ষার্থী সাঁকো পার হয়ে বিদ্যালয়ে যান। লোহা ও কাঠের এ পুলটি অকেজো হয়ে যাওয়ায় গুলিশাখালী, পিসি বারইখালী, আমরবুনিয়া ও উত্তর গুলিশাখালী গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ বিপদে পড়েছেন।

এই পুলটি পার হতে হয় গুলজিয়া আলিম মাদ্রাসা, ১০৩ নং গুলিশাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সুন্দরবন বাজার, গুলিশাখালী বাজার, গুলিশাখালী রফিজ স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ ও তালুকদাবাড়ি জামে মসজিদে চলাচলকারি মানুষদের।

সম্প্রতি অবসরপ্রাপ্ত এক সেনা সদস্য উদ্যোগ নিয়ে স্থানীয়দের নিকট থেকে ২০ হাজার টাকা চাঁদা তুলে পুলটির বিকল্প হিসেবে বাঁশ-খুটি দিয়ে একটি সাঁকো নির্মাণ করেছেন। সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার ওয়ার্ড মেম্বার মো. মিলন তালুকদারও সাঁকো নির্মাণে চাঁদা সংগ্রহ করে দিয়েছেন বলে জানান।

পুলটি সম্পর্কে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বাচ্চু বলেন, খালটি ১৪০ ফুট চওড়া। ওখানে পুল নির্মাণের মত বাজেট পরিষদের নেই। বেসরকারি সংস্থা জাইকা ওখানে একটি স্লিপার ব্রিজ নির্মাণের জন্য ২৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। যা এখন টেনন্ডারের অপেক্ষায় রয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর