৮ অক্টোবর, ২০২২ ২০:০৩

১৪ দিনেও মেলেনি খোঁজ, করতোয়া পাড়ে ঘুরছেন স্বজনরা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি

১৪ দিনেও মেলেনি খোঁজ, করতোয়া পাড়ে ঘুরছেন স্বজনরা

পঞ্চগড়ের করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ থাকা ৩ জনের গেল ১৪ দিনেও কোনো খোঁজ মেলেনি। তাদের স্বজনরা এখনো করতোয়ার তীরে তীরে ঘুরছেন । 

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার মাড়েয়া বামুনপাড়া ইউনিয়নে করোতোয়া নদীতে গত ২৫ সেপ্টেম্বর মহালয়ার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে ভয়াবহ নৌকাডুবির ঘটনায় ৬৯ জন মারা যায়। এ ঘটনায় এখনো নিখোঁজ রয়েছে তিনজন। তাদের মধ্যে ২ জন পুরুষ একজন শিশু। নিখোঁজদের স্বজনরা বলছেন মরদেহ পেলেও শান্তি। অন্তত শেষ দেখা তো দেখা যাবে, করা যাবে স্বজনের শেষকৃত্য।

মা, বোন আর দুই মেয়েকে হারিয়ে পাথরের মতো স্তব্ধ হয়ে গেছেন আলোরানী। মা, বোন আর এক মেয়ের মরদেহ মিললেও এখনো খুঁজে পাননি বড় মেয়ে জয়া রানীর মরদেহ। মেয়ের মরদেহর আশায় এখনো প্রতিদিন করোতোয়ার পাড়ে যাচ্ছেন তার স্বামী ধীরেন রায়। জয়া রানীকে স্কুলে ভর্তি করাবেন বলে বাপের বাড়ি থেকে জাতীয় পরিচয় পত্র আনতে গিয়েছিলেন তিনি। তারপর মা, বোন আর দুই মেয়েকে নিয়ে মহালয়ার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন আলোরানী। আলোরানীর আকুতি ‘যেমন করে হোক আমার মেয়েকে আমার কোলে দেন ভাই।’

এদিকে উদ্ধার অভিযান সীমিত করা হয়েছে। এর আগে ফায়ার সার্ভিসের রংপুর রাজশাহী ও কুড়িগ্রামের আটটি ইউনিটে ৭০ জনের ডুবুরিদল কাজ করছিল। বর্তমানে বোদা থানার ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের একটি দল উদ্ধার কাজে অংশ নিচ্ছেন।

ফায়ার সার্ভিসের বোদা থানার ভারপ্রাপ্ত স্টেশন কর্মকর্তা শাহজাহান আলী জানান, ৭ জন সদস্য নদীর বালুচড়গুলোতে মরদেহ খোঁজাখুজি অব্যাহত রেখেছেন। তবে স্পিডবোট নেই সাধারণ নৌকায় মরদেহ খোঁজা হচ্ছে। মরদেহগুলি মাটির নিচে চাপা পড়তে পারে। তাই খুঁজে পেতে বেগ পেতে হচ্ছে।
 


বিডি প্রতিদিন/নাজমুল

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর