Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ১০:১০
আপডেট : ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ১০:১১

শিশুদের জন্য ‘চা’ পান কেন উপকারী?

অনলাইন ডেস্ক

শিশুদের জন্য ‘চা’ পান কেন উপকারী?

শিশুদের চা পান করার কথা শুনলে একটু অন্যরকম লাগে বৈকি। তবে চা পানে শিশুদের বেশ কিছু উপকার রয়েছে। তবে ব্ল্যাক কিংবা গ্রিন টি শিশুদের দেওয়া যাবে না।

পেট ব্যথা

জার্মান বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চা শিশুদের জন্য উপকারী, বিশেষ করে পেট ব্যথা বা পেটের গোলমাল হলে।

যখন মায়ের দুধই যথেষ্ট

একেবারে বেবি অবস্থায় শিশুদের জন্য মায়ের দুধই যথেষ্ট৷ তবে যখন থেকে শিশু শক্ত খাবার খাওয়া শুরু করে তখন থেকে নাকি চা পানও করতে পারে ওরা। অবশ্য সব চা নয়! জানান জার্মানির বন শহরে পুষ্টি বিষয়ক প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আন্টিয়ে গাল।

মৌরি চা

এই চা বড়দের যেমন উপকার করে, তেমনি উপকার দেয় শিশুদেরও। শিশুরা পেট ব্যথা বা পেটের অস্বস্তির কথা বলতে পারে না, ফলে তারা প্রায়ই কান্নাকাটি করে। এক্ষেত্রে ওদের মৌরি চা দেওয়া যেতে পারে। খাওয়ার পর পেটে বায়ু হওয়া বা পেট ব্যথা শান্ত করতে মৌরি চা বেশ উপকারী।

মোরি চা তৈরির নিয়ম

উপ-মহাদেশে খাওয়া-দাওয়ার পর সামন্য মৌরি দানা খাওয়ার কথা আমাদের সকলেরই জানা, তাই না? হ্যাঁ, মৌরি দানায় রয়েছে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় তেল৷ তাই শিশুদের জন্য মৌরি চা তৈরির সময় সম্ভব হলে দানাগুলো একটু ভেঙে দিলে তেলটুকু বের হতে পারে। একমাত্র তবেই যে পুরো উপকারটুকু পাওয়া যায়!

ক্যামেলিয়া চা

সংক্রমণ দমনকারী ফুল ক্যামেলিয়া৷ তাই এই ফুলের তৈরি চা-ও শিশুদের পেট ঠান্ডা রাখে৷ তাছাড়া শরীরের কোথাও ফুলে গেলে বা চোট পেলে, ঠান্ডা চায়ের পাতা সেখানে লাগালে উপকার পাওয়া যায়৷

ফুটন্ত পানি

শিশুদের শরীর যেহেতু পূর্ণবিকশিত নয়, সে কারণেই শিশুদের চা তৈরির ক্ষেত্রে বিশেষভাবে নজর রাখতে হবে৷ ফুটন্ত পানি সব জীবাণু ধ্বংস করে ফেলে বলে চা তৈরির পানি পুরোপুরি ফোটাতে হবে৷ আর চা ঠান্ডা করতে হলে, গরম চায়ে খানিকটা ‘ফুটন্ত’ ঠান্ডা পানি মিশিয়ে নেবেন৷ তাহলেই হবে৷

কালো বা গ্রিন টি

বড়রা সাধারণত যে চা বেশি পান করেন, অর্থাৎ কালো বা ব্ল্যাক টি শিশুদের পান করা উচিত নয়৷ এছাড়াও গ্রিন টি, বিশেষ করে সুগন্ধী দেওয়া চা শিশুর জন্য একেবারেই ভালো নয়৷

শিশুদের চা

জার্মানিতে অবশ্য শিশুদের জন্য আলাদা ‘চা’ রয়েছে৷ শিশুর জন্মের পর পানির বদলে শিশু চিকিৎসকরা সেই চা-ই পান করানোর পরামর্শ দিয়ে থাকেন৷

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য