Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
প্রকাশ : ১৫ মে, ২০১৯ ১৮:১০

রাসেলকে বাকি ক্ষতিপূরণ দিতে গ্রিন লাইনকে এবার ৭ দিন সময়

অনলাইন ডেস্ক

রাসেলকে বাকি ক্ষতিপূরণ দিতে গ্রিন লাইনকে এবার ৭ দিন সময়
মাঝে পা হারানো রাসেল।

গ্রিন লাইনের বাসের চাপায় পা হারানো প্রাইভেটকার চালক রাসেল সরকারকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে ক্ষতিপূরণের বাকি টাকা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ক্ষতিপূরণের ৫০ লাখ টাকার মধ্যে মাত্র ৫ লাখ টাকার চেক দেয়ার পর গত এক মাসে রাসেল সরকারকে আর কোন টাকা না দেয়ায় আগামী ২২ মে’র মধ্যে ক্ষতিপূরণের টাকা পরিশোধে নির্দেশ দেয়া হয়।

টাকা পরিশোধে গ্রিন লাইন পরিবহনের পক্ষে এক মাস সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ নির্দেশ দেন।

আদালতে গ্রিন লাইন পরিবহনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. অজি উল্লাহ ও রিট আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন খোন্দকার শামসুল হক রেজা। এসময় রাসেল সরকার আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

শুনানিতে গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষের আইনজীবীকে উদ্দেশ্য করে হাইকোর্ট বলেন, আপনারা আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করুন। রাসেলকে আরও টাকা দিন। তা না হলে কী করতে হবে তা আমরা জানি। আপনাদের ব্যবসা তো এখন বন্ধ নেই। আমরা কি রিসিভার নিয়োগ করে দেবো?

এরপর আদলত ৭ দিন সময় দিয়ে আগামী ২২ মে এ বিষয়ে পরবর্তী আদেশের দিন ধার্য করেন।

বাস চাপায় পা হারানো রাসেল সরকারের হাতে গত ১০ এপ্রিল ৫ লাখ টাকার চেক তুলে দেয় গ্রিন লাইন বাস কর্তৃপক্ষ। ওই দিন বিকাল ৩টায় হাইকোর্ট কক্ষে বিচারকের সামনে গ্রিন লাইনের আইনজীবী অজি উল্লাহ এই চেক রাসেলের হাতে তুলে দেন।

সে সময় গ্রিন লাইনের আইনজীবী বাকি ৪৫ লাখ টাকা দিতে এক মাস সময় চাইলে হাইকোর্ট সময় মঞ্জুর করেন। সেই সাথে রাসেলকে যথাযথ চিকিৎসা দিতে গ্রিন লাইন বাসের মালিককে নির্দেশ দেন আদালত।

এর আগে গত ১২ মার্চ হাইকোর্ট পা হারানো প্রাইভেটকার চালক রাসেলকে ৫০ লাখ টাকা দিতে নির্দেশ দেন। সেই সঙ্গে গ্রিন লাইন পরিবহন কর্তৃপক্ষের খরচে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে রাসেলের বিচ্ছিন্ন পায়ে কৃত্রিম পা লাগাতে বলেন আদালত। এছাড়া রাসেলের অন্য পায়ে অস্ত্রোপাচারের প্রয়োজন হলে সে খরচও গ্রিন লাইনকে দিতে বলা হয়।

২০১৮ সালের ২৮ এপ্রিল যাত্রাবাড়ীতে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসের চাপায় এক যুবকের বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ওই যুবককে চাপা দেয়ার পর গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসটি এবং তার চালককে পুলিশ আটক করে। পরে পুলিশ জানায়, মো. রাসেল (২৫) নামের ওই যুবক একটি প্রাইভেটকার চালাচ্ছিলেন। বাসটি তার গাড়িকে ধাক্কা দিলে প্রতিবাদ জানাতে বাস থামাতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বাস চালক তার ওপর দিয়েই বাস চালিয়ে দেন। এতে রাসেলের বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

বিডি প্রতিদিন/১৫ মে ২০১৯/আরাফাত


আপনার মন্তব্য