শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:৩১
আপডেট : ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:৩৭

বশেমুরবিপ্রবি সহকারী প্রক্টরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ নেপালি শিক্ষার্থীর

অনলাইন ডেস্ক

বশেমুরবিপ্রবি সহকারী প্রক্টরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ নেপালি শিক্ষার্থীর
সহকারী প্রক্টর মো. হুমায়ূন কবীর

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সহকারী প্রক্টর মো. হুমায়ূন কবীরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন এক নেপালী শিক্ষার্থী। 

বুধবার বেলা ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন ওই ছাত্রী। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বরাবর লিখিত অভিযোগপত্রে তিনি বলেন, হুমায়ূন কবীর সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক হিসেবে কৃষি বিভাগের কৃষি বিজ্ঞান বিষয়ে নিয়মিত ক্লাস নিতেন। এই সুযোগে তিনি আমার সঙ্গে অন্তরঙ্গ হওয়ার চেষ্টা করেন, এমনকি বিয়ের প্রস্তাবও দেন। আমি তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আমাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বের করে দেয়ার হুমকি পর্যন্ত দিয়েছেন। এসব কথা আমি অন্য শিক্ষকদের জানাতে চাইলে ওই শিক্ষক আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেন।
এছাড়াও আমাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কোনো প্রকারে সার্টিফিকেট নিয়ে যেতে দেবেন না বলেও হুমকি দেন।

যৌন হয়রানির বিষয়ে ইতোপূর্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরী কমিশনের তদন্ত কমিটির কাছে লিখিতভাবে অভিযোগ করেছিলেন ওই বিদেশি শিক্ষার্থী।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও সহকারী প্রক্টর মো. হুমায়ূন কবীর গণমাধ্যমকে বলেন, সাবেক উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করে। সে সময় আমিই সর্বপ্রথম প্রক্টোরিয়াল বোর্ড থেকে পদত্যাগ করি। সাবেক ভিসিপন্থী শিক্ষক আমার বিরুদ্ধে নানান ধরনের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। আমার নামে ফেক ফেইসবুক আইডি খুলে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহ জাহান বলেন, এ ধরনের কোনো অভিযোগ আমার কাছে আসে নাই। যদি এ ধরনের অভিযোগ দাখিল করে থাকে তা যৌন নিপীড়ন সেলের মাধ্যমে তদন্ত করা হবে। 


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য