শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ১০:৪৮
আপডেট : ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ১০:৫০
প্রিন্ট করুন printer

মতিঝিলে বাসের ধাক্কায় ভ্যানচালকের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

মতিঝিলে বাসের ধাক্কায় ভ্যানচালকের মৃত্যু

রাজধানীর মতিঝিলে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ভ্যানচালকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার রাত আড়াইটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। আজ বৃহস্পতিবার  সকাল ৬টার দিকে মারা যান তিনি। নিহত ব্যক্তির বয়স আনুমানিক ৫০ বছর।

মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ আলী বলেন, রাতে মতিঝিল ওয়াপদা বিল্ডিংয়ের সামনে একটি বাস পেছন ধাক্কা দেয় ওই ভ্যানচালককে। এতে  গুরতর আহত হন তিনি। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাত ৩টার দিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকালে তিনি মারা যান।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ০৮:৩৩
প্রিন্ট করুন printer

মঙ্গলবার বন্ধ থাকে ঢাকার যেসব মার্কেট

অনলাইন ডেস্ক

মঙ্গলবার বন্ধ থাকে ঢাকার যেসব মার্কেট

সপ্তাহের একেক দিন বন্ধ থাকে রাজধানীর একেক এলাকার মার্কেট ও দোকানপাট।

জেনে নিন আজ মঙ্গলবার বন্ধ থাকে রাজধানীর কোন কোন এলাকার দোকানপাট ও মার্কেট।

বন্ধ থাকে যেসব মার্কেট

বসুন্ধরা সিটি, মোতালেব প্লাজা, ইস্টার্ন প্লাজা, সেজান পয়েন্ট, নিউ মার্কেট, চাঁদনী চক, চন্দ্রিমা মার্কেট, গাউছিয়া, ধানমন্ডি হকার্স, বদরুদ্দোজা মার্কেট, প্রিয়াঙ্গন শপিং সেন্টার, গাউসুল আজম মার্কেট, রাইফেলস স্কয়ার, অর্চাড পয়েন্ট, ক্যাপিটাল মার্কেট, ধানমন্ডি প্লাজা, মেট্রো শপিং মল, প্রিন্স প্লাজা, রাপা প্লাজা, আনাম র‌্যাংগস প্লাজা, কারওয়ান বাজার ডিআইটি মার্কেট, অর্চিড প্লাজা।

বন্ধ থাকে যেসব এলাকার দোকানপাট

কাঁঠালবাগান, হাতিরপুল, মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ, রাজাবাজার, মণিপুরিপাড়া, তেজকুনীপাড়া, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, নীলক্ষেত, কাঁটাবন, এলিফ্যান্ট রোড, শুক্রাবাদ, সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, হাজারীবাগ, জিগাতলা, রায়েরবাজার, পিলখানা, লালমাটিয়া।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:৩০
প্রিন্ট করুন printer

আগে ভদ্র ছিলেন এখন চিকিৎসা দরকার : কাদের মির্জা প্রসঙ্গে এমপি একরাম

অনলাইন ডেস্ক

আগে ভদ্র ছিলেন এখন চিকিৎসা দরকার : কাদের মির্জা প্রসঙ্গে এমপি একরাম
বাঁ থেকে কাদের মির্জা ও একরাম চৌধুরী

নোয়াখালী-৪ (সদর ও সুবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ একরামুল করিম চৌধুরী বসুরহাট পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র কাদের মির্জার কড়া সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেন, উনি আগে ভদ্র ছিলেন। কিন্তু এখন তার চিকিৎসা দরকার। তিনি এখন যা শুরু করেছেন তাতে করে এটা স্পষ্ট যে উনি অসুস্থ।

সোমবার রাতে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নিউজ টোয়েন্টিফোর-এ ‘মুখোমুখি একরামুল করিম চৌধুরী’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। একরাম চৌধুরী আরও বলেন, তিনি আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বাজে মন্তব্য করেছেন। এটা মেনে নেওয়া যায় না। আমি বলবো উনার এখন চিকিৎসা দরকার। কোনো সুস্থ মানুষ এভাবে কথা বলতে পারেন না। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ২২:৩৮
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ২২:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

'করোনা যুদ্ধে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী' শীর্ষক স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

অনলাইন ডেস্ক

'করোনা যুদ্ধে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী' শীর্ষক স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

“করোনা যুদ্ধে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী” শীর্ষক স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান রবিবার রাজধানীর আর্মি গলফ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বইটির মোড়ক উম্মোচন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, লে. কর্নেল (অবঃ) মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, করোনা যুদ্ধে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী অনন্য নজির স্থাপন করেছেন। জাতির ক্রান্তিকালে দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী সব সময়ই এগিয়ে আসে করোনাকালে আবারও তাই প্রমাণিত হলো। তিনি “করোনা যুদ্ধে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী’’ শীর্ষক বইটির ইংরেজী, স্প্যানিস, চাইনিজসহ অন্যান্য ভাষায় প্রকাশেরও আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ সাজ্জাদ হোসাইন এবং বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এর মহাপরিচালক ড. মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম।

উল্লেখ্য, কালের আলো অনলাইন পত্রিকার ভারপাপ্ত সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুন খান কর্তৃক সংকলিত 'করোনা যুদ্ধে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী' শীর্ষক স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইএসপিআর পরিদপ্তরের পরিচালক লে. কর্নেল আবদুল্লাহ ইবনে জায়েদ। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৩০
প্রিন্ট করুন printer

বরিশালে অবৈধ ৪টি ইটভাটা ধ্বংস করলো পরিবেশ অধিদপ্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বরিশালে অবৈধ ৪টি ইটভাটা ধ্বংস করলো পরিবেশ অধিদপ্তর

বরিশালের বাবুগঞ্জ ও উজিরপুরে অবৈধ ৪টি ইটভাটা ধ্বংস করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর। এ সময় সরকারি লোকজনের উপস্থিত টের পেয়ে পালিয়ে গেছে ইটভাটার লোকজন। পর্যায়ক্রমে জেলার সকল অবৈধ ইটভাটা ধ্বংস করার কথা জানিয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। 

এদিকে কোটি টাকা ব্যয়ে গড়ে তোলা ইটভাটা কেন শুরুতে অনুমোদন দেয়া হয়েছিল সেই প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। 

সোমবার দুপুর ২টা থেকে বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার দোয়ারিকা এলাকায় অভিযান শুরু করে পরিবেশ অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কর্তৃপক্ষ। ভেকু মেশিন ও ফায়ার সার্ভিস এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় ইটভাটার লোকজন। এরপর পরিবেশ অধিপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাদিকুর রহমানের নির্দেশে ইটভাটার কাঁচা ইট ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পানি দিয়ে ধ্বংস করে। ইট পোড়াবার জন্য সাঁজিয়ে রাখা পুরো ভাটা ভেকু মেশিন দিয়ে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়। 

অভিযানে সময় মালিক কর্তৃপক্ষ পালিয়ে যাওয়ার কারণে সেখান থেকে কাউকে আটক কিংবা আর্থিক দণ্ড দেয়নি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। ভ্রাম্যমাণ আদালত পর্যায়ক্রমে বাবুগঞ্জের ফাইন ব্রিকস, রাজ ব্রিকস, নিসা ব্রিকস এবং উজিরপুরের হোপ ব্রিকসে অভিযান চালিয়ে ভাটাগুলো ধ্বংস করে দেয়। 

পরিবেশ অধিদপ্তর বরিশালের উপ-পরিচালক কামরুজ্জামান সরকার জানান, সরকারের নির্দেশনা অনুসারে পরিবেশ রক্ষার জন্য অবৈধ ইটভাটা গুলো ধ্বংস করা হচ্ছে। 

এদিকে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাদিকুর রহমান সবুজ বলেন, পর্যায়ক্রমে সকল অবৈধ ইটভাটা ধ্বংস করা হবে। 

অপরদিকে ইটভাটার আশপাশের স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, যে ইটভাটাগুলো ধ্বংস করা হয়েছে সেগুলো গড়ে তোলার সময় কর্তৃপক্ষ নির্বিকার ছিল। কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ইটভাটাগুলো থেকে সরকার মোট অংকের ভ্যাট আদায় করে। ইটভাটা গুলো ধ্বংসের কারণে উদ্যোক্তারা নিঃস্ব হয়ে গেছে।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৩০
প্রিন্ট করুন printer

বংশালে স্বেচ্ছাসেবক লীগ দক্ষিণের কম্বল বিতরণ

অনলাইন প্রতিবেদক

বংশালে স্বেচ্ছাসেবক লীগ দক্ষিণের কম্বল বিতরণ

রাজধানীর বংশালে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আলহাজ্ব কামরুল হাসান রিপন। আজ সোমবার সন্ধ্যায় নাজিরা বাজার এলাকায় এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। এসময় প্রায় ৭০০ পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। 

এ বিষয়ে কামরুল হাসান রিপন বলেন, আমি সব সময়ই সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চাই, তাদের জন্য কাজ করতে চাই। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে মানুষের সেবা করছি। ভবিষ্যতেও এই সেবার পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় সম্পাদক আব্দুর রহমান, ধর্ম সম্পাদক ইসমাইল হোসেন এবং ৩৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উল্লাহ ওয়ালিদসহ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এই বিভাগের আরও খবর