শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ জুলাই, ২০২০ ১৮:০০

খুলনায় পাওনা আদায়ের দাবিতে আন্দোলনে পাট সরবরাহকারীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা:

খুলনায় পাওনা আদায়ের দাবিতে আন্দোলনে পাট সরবরাহকারীরা

বিজেএমসির কাছে কাঁচাপাট সরবরাহের প্রায় ২৬৫ কোটি টাকা পাওনা আদায়ে আন্দোলনে নেমেছেন সাধারণ মিলঘাট পাট ব্যবসায়ীরা। এর মধ্যে খুলনা জোনের ছয়শ’ ব্যবসায়ীর পাওনা প্রায় ১৩০ কোটি টাকা। 

বুধবার দুপুরে পাওনা আদায়ের দাবিতে খুলনা প্রেস ক্লাবে সাধারণ পাট ব্যবসায়ী সমিতি’র পক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের আহবায়ক শামীম আহম্মেদ মোড়ল। তিনি বলেন, ২০১৬-১৭ অর্থবছর থেকে ২০১৯-২০ অর্থবছর পর্যন্ত বিজেএমসির কাছে সরবরাহ করা পাটের মূল্য বাবদ ২৬৫ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে মিলঘাট ব্যবসায়ী ও এজেন্সিগুলোর। ২০১৫-১৬ ও ২০১৬-১৭ অর্থবছরে উৎপাদিত পণ্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিক্রি করতে না পারায় পাট সরবরাহকারীদের কাছে বিজেএমসির দেনা বাড়তে থাকে। নেতৃবৃন্দ বলেন, পাট ব্যবসায়ীরা ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ব্যবসা করেন। পাট সরবরাহের সাথে ব্যবসায়ী, এজেন্টসহ প্রান্তিক চাষিরা সরাসরি জড়িত। বকেয়া টাকা না পাওয়ায় দেনার দায়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। 
এসময় সংগঠনের সদস্য সচিব গাজী শরিফুল ইসলাম অহিদ, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক টিপু সুলতান, উপদেষ্টা শেখ আবু জাফর, কামরুজ্জামান মিঠু, শেখ ইমাম হোসেন উপস্থিত ছিলেন। 

নেতৃবৃন্দ বলেন, বিজেএমসির কাছে পাওনা আদায়ে ১৭ জুলাই ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী ও পাটমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেওয়া হবে। ওই দিন পাট ব্যবসায়ীদের বৈঠকে চূড়ান্ত আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। 

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর