শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ মে, ২০২১ ১৯:৪৮
আপডেট : ৩ মে, ২০২১ ২২:১৫
প্রিন্ট করুন printer

ছাত্রনেতাদের মুক্তি না দিলে গণভবনের সামনে ঈদ করবেন নুর

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

ছাত্রনেতাদের মুক্তি না দিলে গণভবনের সামনে ঈদ করবেন নুর

গ্রেফতার ছাত্রনেতাদের মুক্তির দাবি জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর বলেন, তাদের যদি মুক্তি দেওয়া না হয়, তাহলে আমাদের ঈদ হবে গণভবনের সামনে।

সোমবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে 'উদ্বিগ্ন অভিভাবক সমাজে'র ব্যানারে এক অবস্থান কর্মসূচিতে এসব কথা বলেন তিনি। 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের প্রতিবাদ কর্মসূচি থেকে গ্রেফতারকৃত ছাত্র-জনতার নিঃশর্ত মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

এসময় নুরুল হক নুর বলেন, আজ বাংলাদেশে যে একটি ভয়ার্ত পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে, তাতে আমাদের কারো মনোবল দুর্বল হয়নি। যদি সরকার ভেবে থাকে, এই ৫৬ জন ছাত্রনেতাকে গ্রেফতার করে দেশের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করবে, সেটা কখনওই হবে না। 

কর্মসূচিতে অংশ নেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক আসিফ নজরুল, অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী, আলোকচিত্রী শহিদুল আলম, ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব রফিকুল ইসলাম বাবলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা নঈম জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে গ্রেফতারকৃত শিক্ষার্থীদের ঈদের আগেই জামিনে মুক্তির দাবি জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, আমি মামলা প্রত্যাহারের কথা বলছি না। মামলায় যদি তারা অপরাধী হয়, হবে। কথা বলা যদি অপরাধ হয়ে থাকে তবে জেল-জুলুম-ফাঁসি দিয়ে দেন।

এসময় মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, একটি সরকার কতটা দুর্বল হলে ৫৬ জন ছাত্রের ভয়ে কাপতে থাকে।  ছাত্রনেতারা এমন কি করেছে যে, তারা জামিন পাবে না? তাদের জামিন দেওয়া হবে না কেন? রিমান্ডে অত্যাচার করে অভিযুক্তদের স্বীকারোক্তি নেওয়া হয়। আদালত এ বিষয়ে জানেও। রিমান্ড ব্যবস্থা না তুলে নিলে দেশে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা মুশকিল হয়ে যাবে।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর