শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫৬

শিশুপার্কটি এখন গোচারণ ভূমি!

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

শিশুপার্কটি এখন গোচারণ ভূমি!

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা সদরের একমাত্র শিশুপার্কটি গোচারণ ভূমিতে পরিণত হয়েছে। গবাদিপশুর অবাধ বিচারণের কারণে নষ্ট হচ্ছে শিশুদের বিনোদনের পরিবেশ। অভিভাবকরাও সন্তানদের নিয়ে এখন পার্কে আসতে অনীহা প্রকাশ করছেন। বখাটেদের আনাগোনাও বেড়েছে পার্কে। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। সরেজমিন দেখা গেছে, বেশকটি গরু-ছাগল চরে বেড়াচ্ছে পার্কে। যত্রতত্র ছড়িয়ে আছে পশুর মলমূত্র। মানুষ বসার আসন চলে গেছে ছাগলের দখলে। পার্কের পাশেই পরিত্যক্ত ভবনের আশপাশে মাদকাসক্তদের আনাগোনা। ভেঙে পড়েছে শিশুদের বিনোদনের একাধিক দোলনা। সন্তান নিয়ে পার্কে ঘুরতে আসা সঞ্জয় কর্মকার বলেন, ‘প্রশাসনের কর্মকর্তাদের চোখের সামনে থাকা পার্কটির অবস্থা এমন হওয়া কাম্য নয়। শিশুদের নির্মল বিনোদনের জন্য সরকারের এই প্রচেষ্টা শুধু তদারকির অভাবে সফল হচ্ছে না। স্থানীয় প্রশাসনের এ বিষয়ে আরও সচেতন হওয়া দরকার।’ রাজাপুর সদর ইউপি সদস্য তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘গবাদিপশু নিয়ন্ত্রণের জন্য বর্তমানে সদর ইউনিয়নে কোনো খোয়াড় নেই। কেউ আবেদন করলে খোয়াড় বরাদ্দ দেওয়া হবে।’ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা বেগম পারুল জানান, পার্কের পরিচর্যা বা সার্বক্ষণিক তদারকির জন্য লোকবল বরাদ্দ না থাকায় মাঝেমধ্যে গবাদিপশু প্রবেশ করছে। যারা গরু-ছাগল ছেড়ে দিয়ে পালন করছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মন্তব্য