শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:২৯

ভাঙ্গার সেই ইউএনও অবশেষে বদলি

ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার বহুল আলোচিত ও সমালোচিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিবুর রহমান খানের বদলির আদেশ হয়েছে। গতকাল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনটি ওয়েব সাইটে প্রকাশ পায়। ইউএনওর বদলির সংবাদ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে পড়লে তার দ্বারা ভুক্তভোগীরাসহ সমাজের নানা শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে আসে। গত বছরের ১০ মার্চ ইউএনও রাকিবুর রহমান খান ভাঙ্গায় যোগদান করেন। যোগদানের পর হতেই বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকান্ডে একাধিকবার সমালোচনার ঝড় ওঠে তাকে নিয়ে। চরভদ্রাসন উপজেলার চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে স্থানীয় সাংসদ সমর্থিত প্রার্থীর এক এজেন্টকে বিনা অপরাধে আটক করে বেশ সমালোচনার জন্ম দেন। এ নিয়ে সংসদ সদস্য মুজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরীর সঙ্গে একটি ফোনালাপ ভাইরাল হয়। যা দেশের সব ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মাধ্যমে প্রকাশ পায়। এ ঘটনার কয়েকদিন পর নিজ বাসার ভিতরে শটগানের একাধিক গুলি ফুটিয়ে ফের আলোচনায় আসেন এবং সংবাদের শিরোনাম হন। এ ছাড়াও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মুজিববর্ষর উপহার দরিদ্রদের আবাসন প্রকল্পর ২৫০টি ঘর নিজ অফিসের কর্মচারীদের দ্বারা করিয়ে সমালোচনায় পড়েন তিনি। এ ছাড়াও বর্তমান উপজেলা পরিষদের  চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে তাকে অহেতুক হয়রানি করেন। গত দুই মাস আগে আড়িয়াল খাঁ নদীর খনন কাজের কয়েক কোটি ঘনফুট বালু উত্তোলন করে তা নিজেই বিক্রি করার টাকা নিজের কাছে রাখায় ব্যাপক সমালোচনা হয়। তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তাকে মামলাসহ হয়রানির ভয় দেখানো ছিল প্রধান অস্ত্র। গত বছরের ডিসেম্বরে ভাঙ্গা বাজারের ৬৫ শতাংশ সরকারি জায়গা বরাদ্দর নামে কথিত দোকানদারদের কাছ কোটি টাকার বাণিজ্য করেন তিনি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর