শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৫৯

‘আমার বাড়ি আমার খামার’ প্রকল্পে স্বাবলম্বী হচ্ছেন হতদরিদ্ররা

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

‘আমার বাড়ি, আমার খামার’ প্রকল্পের ক্ষুদ্র ঋণ বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলায় দারিদ্র্য বিমোচনে ভূমিকা রাখছে। এ প্রকল্পের আওতায় হাঁস-মুরগি, গরু-ছাগল, মাছ চাষসহ বিভিন্ন প্রকল্পে সহজশর্তে ঋণ নিয়ে অনেক অসহায় নারী-পুরুষ সফল উদ্যোক্তা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। পাশাপাশি পরিবারের অভাব-অনটন দূর করে নিজেদের করেছেন স্বাবলম্বী। ফলে চিতলমারীতে দরিদ্রের সংখ্যা কমার সঙ্গে সঙ্গে অনেকাংশে কমেছে বেকারত্ব। ‘আমার বাড়ি, আমার খামার’ প্রকল্পের অফিস সূত্রে জানা যায়, এ প্রকল্পের মাধ্যমে সরকার একদিকে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে সুসংগঠিত করছে। অন্যদিকে সঞ্চয়ের উৎসাহ প্রদান করে সদস্যদের যুব উন্নয়নের মাধ্যমে কর্মমুখী প্রশিক্ষণ দিয়ে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করে স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করছে। এ উপজেলায় ২৩০টি গ্রাম উন্নয়ন সমিতি গঠন করা হয়েছে। যার সদস্য সংখ্যা ৯ হাজার ৭৪২ জন। এসব সমিতির তহবিল দাঁড়িয়েছে ১৩ কোটি ১০ লাখ টাকা। প্রকল্পের স্থানীয় মাঠ সহকারী ইন্দ্রজিৎ মন্ডল বলেন, চিতলমারীর বিভিন্ন এলাকার হতদরিদ্র মানুষ আগে বিভিন্ন এনজিও থেকে টাকা নিয়ে ঋণের জালে আরও দরিদ্র হয়ে যাচ্ছিল। এখান থেকে সহজশর্তে ঋণ নিয়ে অনেকে স্বাবলম্বী হয়েছেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর