শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২১:৩৩

মহিলা কলেজে এক শিক্ষকের উপর অন্য শিক্ষকের হামলা!

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

মহিলা কলেজে এক শিক্ষকের উপর অন্য শিক্ষকের হামলা!
আহত শিক্ষক আলমগীর কবির পলাশ (মাঝে)

বগুড়ায় মিজানুর রহমান নামে এক শিক্ষক সন্ত্রাসী সাথে নিয়ে কলেজের ক্লাস রুমে ঢুকে খন্ডকালীন শিক্ষক আলমগীর কবির পলাশকে বেদম মারধর করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে শহরতলির গোদারপাড়ায় জাহিদুর রহমান মহিলা ডিগ্রি কলেজে এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিবাদে ছাত্রীরা কলেজের সামনে বগুড়া-নওগাঁ সড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিরা তাদের ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে নেয়। আহত ওই শিক্ষক বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

কলেজের অধ্যক্ষ মাহবুব আলম ও কয়েকজন শিক্ষক অভিযোগ করেন, শিক্ষক মিজানুর রহমান বহিরাগত সন্ত্রাসীদের সাথে নিয়ে এ হামলা চালিয়েছেন। এ ব্যাপারে ম্যানেজিং কমিটির সাথে আলোচনা করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

কলেজের শিক্ষক-কর্মচারিরা জানান, ডিগ্রি শাখায় নিয়োগকৃত ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক মিজানুর রহমান গত ৩-৪ মাস ক্লাস নেন না। শিক্ষার্থীদের ক্ষতির কথা বিবেচনা করে মাসিক দুই হাজার টাকা বেতনে আলমগীর কবির পলাশ নামে একজনকে খণ্ডকালীন শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়া হয়। এনিয়ে দ্বন্দ্বের সাথে কলেজের ম্যানিজিং কমিটি গঠন নিয়ে অপর একটি দ্বন্দ্বও চলছে। সব মিলিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। 

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক মিজানুর রহমান জানান, মঙ্গলবার দুপুরে ক্লাস নেবার জন্য রুমে গেলে সেখানে আলমগীর কবির পলাশকে দেখতে পান। তখন পলাশ তার সাথে দুর্ব্যবহার করলে বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতি হয়েছে। এ সময় তার সাথে বহিরাগত কেউ ছিল না। তারা মিথ্যা বানোয়াট কথা বলছে। 

বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান জানান, কলেজ থেকে মামলা দিলে তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর