শিরোনাম
প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর, ২০২০ ২২:১১

ঠাকুরগাঁওয়ে বুড়ির বাঁধে মাছ ধরার উৎসব

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ে বুড়ির বাঁধে মাছ ধরার উৎসব

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সুক নদীর বুড়ির বাঁধে চলছে মাছ ধরার উৎসব। এতে অংশ নিয়েছে জেলার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। প্রতি বছর কার্তিক মাসের প্রথমদিনে এ উৎসব হয়। 

জানা যায়, ১৯৮০ সালের দিকে শুষ্ক মৌসুমে এ অঞ্চলের কৃষি জমির সেচ সুবিধার জন্য এলাকায় একটি জলকপাট নির্মাণ করা হয়। জলকপাটে আটকে থাকা সেই পানিতে প্রতিবছর মৎস্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে বিভিন্ন জাতের মাছের পোনা ছাড়া হয়। আর এ পোনাগুলোর দেখভাল করে  আক্চা ও চিলারং ইউনিয়ন পরিষদ। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকালে মাছ ধরতে জাল, খইয়া জাল, পলো ও মাছ রাখার খালুই নিয়ে গ্রাম ও শহরসহ বিভিন্ন এলাকার শত শত মানুষ মাছ ধরার উৎসবে যোগ দেয়। মাছ ধরার এ আয়োজনকে ঘিরে বুড়ির বাঁধ এলাকা পরিণত হয় মিলনমেলায়। 

বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে মাছ ধরতে আসা রমজান, রানা, বাচ্চু বলেন, এর আগের বছরও এখানে এসেছিলাম মাছ ধরতে, ঠিক এবারও এসেছি। আমার সঙ্গে এলাকার আরও ছয়জন এসেছে। ভোর ৫টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত আমরা প্রায় ৪০ কেজি বিভিন্ন জাতের মাছ ধরেছি। 

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আক্চা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার বর্মণ বলেন, “প্রত্যেক বছরের কার্তিক মাসের প্রথম দিনে বুড়িরবাঁধের জমানো পানি ছেড়ে দেওয়া হয় এবং মাছ ধরার জন্য উন্মুক্ত করা হয়।

এ ব্যাপারে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আফতাব হোসেন বলেন, ৫০ একর এলাকাজুড়ে সুক নদীর উপর নির্মিত বুড়ির বাঁধ মৎস্য অভয়াশ্রম। সারা বছর কাউকে এখানে মাছ ধরতে দেওয়া হয় না। এ বছর এখানে বিভিন্ন জাতের ১৬ কেজি মাছের রেণু ছাড়া হয়েছিল বলে জানান তিনি।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর