১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২০:৫৪

গৃহবধূকে স্বামী-দেবরের নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, আটক ২

নোয়াখালী প্রতিনিধি

গৃহবধূকে স্বামী-দেবরের নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, আটক ২

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় এক গৃহবধূকে স্বামী-দেবরের নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত ২ জনকে আটক করেছে। 

আটককৃতরা হলেন স্বামী আমির হোসেন (৪০) ও তার বোন হাসিনা বেগম। তারা উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ রাজারামপুর মোহাম্মদীয়া মিয়া বাড়ির মৃত মছিজ উদ্দিনের ছেলে- মেয়ে। 
 
রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে শনিবার বিকেলে উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ রাজারামপুর মোহাম্মদীয়া মিয়া বাড়িতে নির্যাতেনর  ঘটনা ঘটে। পরে রবিবার সকাল থেকে গৃহবধূকে নির্যাতনের ভিডিও চিত্রটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে গৃহবধূকে (৩০) গতকাল বিকেল ৪টার দিকে তার স্বামী আমির হোসেন ও দেবর এরশাদ নির্দয় ভাবে চুলের মুঠি ধরে লাঠি পেটা করে এবং বেধড়ক চড় থাপ্পড়, লাথি, কিলঘুষি দিয়ে গুরুত্বর আহত করে এবং ভিডিও করে। গৃহবধূকে নির্যাতনের ১ মিনিট ১৭ সেকেন্ড ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। জানা যায়, আমির ও এরশাদ মাদক ব্যবসা ও ডাকাতিতে জড়িত। ওদের ভয়ে কেউ এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করার সাহস পায় না। ঘটনার পর নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ তার বাবার বাড়ি পার্শ্ববর্তী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাটে গিয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল বাতেন মৃধা জানান, গতকাল বিকেলে ওই গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। পরে রবিবার সকালের দিকে নির্যাতনের ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তবে ঘটনার মূল হোতা দেবর পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছে পুলিশ। ওসি বাতেন আরও জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ওই মামলার পর সোমবার সকালে গ্রেফতারকৃত আসামিদের নোয়াখালী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর