Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ জুন, ২০১৯ ০১:৪২

উইকেটে বল লাগলেও বেল পড়ছে না, বিতর্ক বিশ্বকাপে!

অনলাইন ডেস্ক

উইকেটে বল লাগলেও বেল পড়ছে না, বিতর্ক বিশ্বকাপে!
ফাইল ছবি

বিশ্বকাপে এই নিয়ে পাঁচবার। যখন উইকেটে বল লাগল, কিন্তু পড়ল না বেল। ওভালে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ইনিংসের একেবারে শুরুতে জাশপ্রীত বুমরার একটা বল ওয়ার্নারের ব্যাটে লেগে উইকেটে লাগলেও বেল পড়েনি। বেঁচে যাওয়া ওয়ার্নার শেষ পর্যন্ত ৫৬ করে যান। 

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে মিচেল স্টার্কের ঘণ্টায় ১৪৬ কিলোমিটার গতিতে ছুটে আসা ডেলিভারিতে বল উইকেটে লাগলেও বেল পড়েনি। সে ক্ষেত্রে বেঁচে যাওয়া ব্যাটসম্যানের নাম ক্রিস গেইল।

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বেল না পড়ে বেঁচে গিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার ওপেনার কুইন্টন ডি কক। আবার শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নে একই ভাবে নিষ্কৃতি পান নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে। বল উইকেটে লাগলেও বেল না পড়ার এতগুলো ঘটনায় রীতিমতো বিতর্ক তৈরি হয়েছে বিশ্বকাপে। 

ওয়ার্নারের ঘটনা নিয়ে ওভালের ম্যাচে শেষে প্রতিবাদী হয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি বলেছেন, 'অবশ্যই ওয়ার্নারের বেঁচে যাওয়াটা ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট হতে পারত। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এটা প্রত্যাশিত নয়। প্রযুক্তি খুব ভালো। বেলে হাত লাগলে বা ছুঁলেও আলো জ্বলছে। কিন্তু বেল ফেলতে গেলে রীতিমতো ধাক্কা লাগাতে হচ্ছে উইকেটে। আমি নিজে ব্যাটসম্যান হয়ে এটা বলছি।' 

কোহলি আরও বলেন, 'আমরা নিজে স্টাম্প পরীক্ষা করেছি। খুব শক্ত করে মাটিতে পোঁতা হয়েছে, এমনও হয়। তাহলে কী হচ্ছে? আমার কাছে কোনো ব্যাখ্যা নেই। মনে রাখবেন, যে বোলারদের ক্ষেত্রে ঘটনা ঘটেছে, তারা সবাই ফাস্ট বোলার। কেউ মিডিয়াম পেসার নয়। তা হলে কি স্টাম্পগুলো বেশি ভারী? কোনো টিম চাইবে না, একটা ভালো বলে ব্যাটসম্যানকে আউট করার পরেও সে ক্রিজে থেকে যাক। আমি অন্তত এরকম কিছু আগে দেখিনি।'

বিরাটকে সমর্থন করেছেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চও। স্বীকার করে নিচ্ছেন, যে কোনো বড় ম্যাচে এই ধরণের একটা ঘটনা ম্যাচের ফলাফল বদলে দিতে পারে। তিনি জানান, 'নিশ্চয়ই এই রকম একটা ঘটনা ম্যাচকে প্রভাবিত করতে পারে। যত বিশ্বকাপ এগোচ্ছে, এই রকম বেল না পড়ে বেঁচে যাওয়ার ঘটনা বাড়ছে। আমি জানি না, বেল কতটা হাল্কা হওয়া উচিত। তবে এটা নিয়ে ভাবা দরকার। বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল বা ফাইনালে এভাবে কোনও ব্যাটসম্যান বেঁচে গেলে তার চেয়ে খারাপ কিছু হবে না।'

আইসিসি দাবি করছে, বিশ্বকাপে যে 'জিং বেল' ব্যবহার করা হচ্ছে, তা সাধারণ কাঠের বেলের চেয়ে হাল্কা। তা হলে কেন বেল পড়ছে না, সেই রহস্য থাকছে। তা হলে কি স্টাম্পের ঘনত্ব বেশি হয়ে যাচ্ছে?

দুই সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক নাসের হুসেইন ও মাইকেল ভনের দাবি, অবিলম্বে এই নিয়ে ব্যবস্থা নিক আইসিসি। হুসেইন বলেছেন, 'প্রথমে সবাই ভেবেছিল, এটা একটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা। কিন্তু প্রথম ১০ দিনের মধ্যে বিশ্বকাপে পাঁচবার এই ঘটনা ঘটেছে, যেখানে উইকেটে বল লাগলেও বেল পড়েনি। এটা টুর্নামেন্টের জন্য মোটেই ইতিবাচক নয়। বিগ ম্যাচে মোক্ষম সময়ে এ ভাবে কোনও ব্যাটসম্যান বেঁচে গেলে সেটা হবে অনৈতিক।'

একই ভাবে মাইকেল ভনের দাবি, প্রয়োজনে প্রযুক্তি বদল করা হোক। তিনি বলেন, 'বেলে আলো জ্বলার দরকার নেই, কিন্তু সেটাতে বল লাগলে পড়ে যাওয়া জরুরি। এটুকু আইসিসিকে নিশ্চিত করতে হবে,' বলেছেন ভন।

 

বিডি-প্রতিদিন/ তাফসীর আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য