শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:২৭

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা

—আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতাসীন হতে যাওয়া আগামী সরকারকে আইনের শাসন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মৌলিক মানবাধিকার নিশ্চিত করতে হবে বলে মনে করেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। তিনি বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরুদ্ধে কেউ যাতে কিছু করতে না পারে সেদিকে আগামীতে জনগণ ও সরকারকে সজাগ থাকতে হবে। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। তিনি বলেন, এবার সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে যে সরকার ক্ষমতায় আসছে, তাদের সামনে বহুমুখী চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এর অনেক চালেঞ্জ বর্তমানেও বিদ্যমান। জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য—এসডিজি পরবর্তী সরকারকেই অর্জন করতে হবে। দেশে স্বচ্ছ ও গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা বজায় রাখতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরুদ্ধে কেউ যাতে কিছু করতে না পারে, সেদিকে জনগণ ও সরকারকে সজাগ থাকতে হবে। দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির সুযোগ যেন কেউ না পায়, সে বিষয়ে সরকার ও জনগণকে সতর্ক থাকতে হবে। আগামী সরকারকে আইনের শাসন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মৌলিক মানবাধিকার নিশ্চিত করতে হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষক বঙ্গবন্ধুর জীবন দর্শন অনুসরণ করে দেশ পরিচালনা করতে নতুন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের কথা, শুধু বলার জন্য বলা নয়। বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে হবে। অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি, দেশপ্রেম, মানবিক মূল্যবোধ ও আত্মশুদ্ধির মাধ্যমে রাজনীতিবিদদের উন্নতি করতে হবে। দেশবরেণ্য শিক্ষাবিদ আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক মনে করেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের কথা বলে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধীদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা যাবে না। শুধু নির্বাচনের সময়ে ভোটের জন্য মুক্তিযুদ্ধের কথা নয় বরং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ক্ষমতায় বসে বাস্তবায়ন করতে হবে ও অন্তরে ধারণ করতে হবে।


আপনার মন্তব্য