Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১১

নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে ৭৪ প্রার্থীর মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে ৭৪ প্রার্থীর মামলা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটে অনিয়মের অভিযোগে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৭৪ জন প্রার্থী হাই কোর্টের নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছেন। তাদের আবেদনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিল ঘোষণার পাশাপাশি পূর্বের ফলাফল বাতিলের দাবি জানানো হয়েছে। মামলাকারীদের মধ্যে রয়েছেন বিএনপির ৭০ জন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৩ জন এবং প্রোগ্রেসিভ ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) ১ জন প্রার্থী। গতকাল পর্যন্ত এসব মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বিএনপির আইনজীবী প্যানেলের সদস্য আইনজীবী নিতাই রায় চৌধুরী, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, ব্যারিস্টার রাগীব রউফ চৌধুরী ও ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান। তারা বলেন, প্রত্যেক আবেদনকারী নিজ নির্বাচনী আসনের অন্য প্রার্থীদের বিবাদী করেছেন। আবেদনে বিবাদী বিজয়ী প্রার্থীদের সংসদ সদস্য পদ বাতিল চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া প্রত্যেক সংসদীয় আসনের নির্বাচনও বাতিল চাওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে প্রার্থীদের প্যানেল আইনজীবী এ কে এম এহসানুর রহমান বলেন, গতকাল পর্যন্ত ৭৪টি আবেদন দায়ের করা হয়েছে। এসব আবেদনের মাধ্যমে নির্বাচনে যে অনিয়ম হয়েছে সে বিষয়ে আমরা আদালতে উপস্থাপন করব। 

মামলা দায়েরকারী প্রার্থীরা হলেন- সুব্রত চৌধুরী ঢাকা-৬, (গণফোরাম,) মফিজুল ইসলাম খান কামাল মানিকগঞ্জ-৩, মেজর জেনারেল (অব.) আ ম সা আমিন (কুড়িগ্রাম-২), আবদুল মোমেন চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১৫), সাইফুল ইসলাম ফিরোজ (ঝিনাইদহ-৪), আবুল কালাম আযাদ সিদ্দিকী (টাঙ্গাইল-৭), জয়নুল আবেদীন (বরিশাল-৩), রুমানা মাহমুদ (সিরাজগঞ্জ-২), জহির উদ্দিন স্বপন (বরিশাল-১), শাহ রিয়াজুল হান্নান (গাজীপুর-৪), নাছের রহমান (মৌলভীবাজার-৩), আবদুল হাই (মুন্সীগঞ্জ-৩), হাফিজ ইব্রাহিম (ভোলা-২), রুহুল আমিন দুলাল (পিরোজপুর-৩), ডাক্তার দেওয়ান মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন (ঢাকা-১৯), হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (ভোলা-৩), তাসভীর উল আলম (কুড়িগ্রাম-৩), মো. সাইফুল ইসলাম (রংপুর-৬), মো. সাদেক রিয়াজ (দিনাজপুর-২), মোস্তফা মহসীন মন্টু (ঢাকা-৭), নজরুল ইসলাম আযাদ (নারায়ণগঞ্জ-২), মইনুল ইসলাম খান শান্ত (মানিকগঞ্জ-২), ইরফান ইবনে আমান অমি (ঢাকা-২), নবীউল্লাহ নবী (ঢাকা-৫), আশরাফ উদ্দিন (নরসিংদী-৫), মো. আমিরুল ইসলাম খান আলিম (সিরাজগঞ্জ-৫), শহীদুল ইসলাম (টাঙ্গাইল-১), ফরহাদ হোসেন আযাদ (পঞ্চগড়-২), মো. হাসান রাজিব প্রধান (লালমনিরহাট-১), মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১৬), মো. আক্তারুজ্জামান মিয়া (দিনাজপুর-৪), মো. শাহজাহান মিয়া (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১)।

এ ছাড়া আরও যারা মামলা দায়ের করেছেন তারা হলেন- মিজানুর রহমান (সুনামগঞ্জ-৫), মো. জি কে গউছ (হবিগঞ্জ-৩), মজিবুর রহমান চৌধুরী (মৌলভীবাজার-৪), ফারুক আলম সরকার (গাইবান্ধা-৫), শফী আহমেদ চৌধুরী (সিলেট-৩), মো. আনোয়ারুল হক (নেত্রকোনা-২), শাহ মো. ওয়ারেস আলী (জামালপুর-৫), নিতায় রায় চৌধুরী (মাগুরা-২), অনিন্দ্য ইসলাম অমিত (যশোর-৩), মো. আবু সুফিয়ান (চট্টগ্রাম-৮),  মাসুদ অরুণ (মেহেরপুর-১), আমিন উর রশীদ (কুমিল্লা-৬), এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন (নোয়াখালী-১), শহীদুল ইসলাম ভুইয়া (খাগড়াছড়ি), সাব্বির আহমেদ (রংপুর-৩), মুন্সী রফিকুল আলম (ফেনী-১) জয়নুল আবদিন ফারুক (নোয়াখালী-২), সাচিং প্রু (বান্দরবান), শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক (চাঁদপুর-৩), আবুল খায়ের ভুইয়া (লক্ষ্মীপুর-২), জাকির হোসেন সরকার (কুষ্টিয়া-৩), রকিবুল ইসলাম (খুলনা-৩), শামা ওবায়েদ ইসলাম (ফরিদপুর-২), আনিছুর রহমান (মাদারীপুর-৩), আজিজুল বারী হেলাল (খুলনা-৪), শাহ মো. আবু জাফর (ফরিদপুর-১), মো. শরীফুজ্জামান (চুয়াডাঙ্গা-১), হাবিবুল ইসলাম হাবিব (সাতক্ষীরা-১), আলী নেওয়াজ মো. খৈয়ম (রাজবাড়ী-১)।


আপনার মন্তব্য