শিরোনাম
শনিবার, ১৪ জানুয়ারি, ২০২৩ ০০:০০ টা

ডাকাত সন্দেহে কুমিল্লায় পিটিয়ে দুজনকে হত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি

ডাকাত সন্দেহে কুমিল্লায় পিটিয়ে দুজনকে হত্যা

কুমিল্লার মুরাদনগরে মাইকে ঘোষণা দিয়ে দুজনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও একজন। গতকাল ভোররাতে উপজেলার দারোরা ইউনিয়নের পালাসুতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তবে পুলিশ বলছে, হতাহতরা ডাকাত কি না তা কোনো সূত্রে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তারা কারও বাড়িতে ডাকাতি করেছেন এমন কোনো তথ্যও পাওয়া যায়নি। ফলে এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

নিহতরা হলেন কাজিয়াতল গ্রামের আবদুস ছালামের ছেলে নুরু মিয়া (২৮) ও পালাসুতা গ্রামের মৃত গিয়াস উদ্দিনের ছেলে ইসমাইল হোসেন (২৭)। এ ঘটনায় গুরুতর আহত শাহজাহান সদর দক্ষিণ থানার বাগমারা গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বোড়ার চর গ্রামে ডাকাতি করতে এসে ধাওয়া খেয়ে ডাকাত দলের তিন সদস্য পালাসুতা গ্রামের একটি বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন বলে এলাকার মাইকে ঘোষণা করা হয়। তখন আশপাশের কয়েক গ্রামের সহস্রাধিক লোক জড়ো হয়ে নাবু মিয়ার ঘর থেকে তার মেয়েজামাই ও দুই বন্ধুকে ধরে নিয়ে পিটুনি দেয়। এতে তিনজনই গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে মুরাদনগর থানা পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজনের মৃত্যু হয়।

মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিহত নুরু মিয়ার শ্বশুরবাড়ি ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে দুই রকম তথ্য পাওয়া গেছে। তবে কেউই তারা কোথায় বা কার বাড়িতে ডাকাতি বা ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন সে তথ্য দিতে পারেনি। তাদের অতীত কর্মকান্ড যাচাই করা হচ্ছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (মর্গে) পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর