শিরোনাম
প্রকাশ : ১ ডিসেম্বর, ২০২০ ০৮:০১
আপডেট : ১ ডিসেম্বর, ২০২০ ১১:১৮
প্রিন্ট করুন printer

দক্ষিণ কোরিয়াকে অবিলম্বে ইরানের আটক অর্থ ফেরত দিতে হবে: তেহরান

অনলাইন ডেস্ক

দক্ষিণ কোরিয়াকে অবিলম্বে ইরানের আটক অর্থ ফেরত দিতে হবে: তেহরান
মুজতবা জুন্নুরি

দক্ষিণ কোরিয়ায় আটকে পড়া ইরানের অর্থ অবিলম্বে ফেরত দিতে সিউলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তেহরান। ইরানের সংসদ- মজলিসে শুরায়ে ইসলামির জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক কমিশনের প্রধান মুজতবা জুন্নুরি এ আহ্বান জানিয়েছেন।

বিগত বছরগুলোতে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরানের কাছ থেকে তেলসহ অন্যান্য পণ্য আমদানি করে তার অর্থ পরিশোধ করতে পারেনি দক্ষিণ কোরিয়া। দেশটিতে ইরানের শত শত কোটি ডলারের অর্থ আটকা পড়েছে।

জুন্নুরি সোমবার এক ভিডিও কনফারেন্সে দক্ষিণ কোরিয়ার পার্লামেন্টের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিশনের প্রধান সং ইউং গিলের সঙ্গে আলাপ করার সময় এ আহ্বান জানান। জুন্নুরি বলেন, ইরান প্রাকৃতিক সম্পদে সমৃদ্ধ একটি দেশ এবং দক্ষিণ কোরিয়ার বহু প্রয়োজন তেহরানের পক্ষে মেটানো সম্ভব। এছাড়া, ইরানের বাজার দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থনীতি বিকাশেরও একটি ভালো ক্ষেত্র হতে পারে।

কিন্তু মার্কিন সরকার ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়ার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে উল্লেখ করে ইরানের প্রভাবশালী সংসদ সদস্য জুন্নুরি বলেন, দু’টি দেশের উচিত তাদের মধ্যকার সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করার তৃতীয় পক্ষের প্রচেষ্টা প্রতিহত করা। তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানকে শাস্তি দেওয়ার ক্ষেত্রে তার দেশের অভ্যন্তরীণ আইনকে গোটা বিশ্বের উপর চাপিয়ে দিয়ে বিশ্ব সমাজকে অপমান করেছেন।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত সাক্ষাতে সং ইয়ং গিল বলেন, ইরানের সঙ্গে তার দেশের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কারণে কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণ করার পর তেহরান-সিউল অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সম্পর্কের উন্নতি হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। দক্ষিণ কোরিয়ার এই প্রভাবশালী সংসদ সদস্য সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী হামলায় ইরানের বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদের হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, এটি একটি বড় ধরনের অপরাধযজ্ঞ।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর