শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৩:৪৭
প্রিন্ট করুন printer

মিয়ানমারে সেনাদের গুলি উপেক্ষা করে চলছে বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমারে সেনাদের গুলি উপেক্ষা করে চলছে বিক্ষোভ

মিয়ানমারে সামরিক জান্তা বন্দুকের ভয় দেখিয়ে মানুষকে ঘরে আটকে রাখতে পারেনি। প্রতিদিনই বিক্ষোভে নেমে আসছেন জনগণ। তাদের দাবি অং সান সূচি'র মুক্তি দিয়ে পুনর্বহাল করতে হবে বেসামরিক প্রশাসন। গুলিতে চালানো হলেও বিক্ষোভকারীরা থেমে যাননি। 

কমপক্ষে তিনজনকে গুলি করে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এদের মধ্যে একজন টিনেজার এবং একজনের বয়স ২০ বছর। প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনের ৪৬ বছর বয়সী সান সান মাওয়া বলেছেন, 'প্রতিজন মানুষ এই বিক্ষোভে যোগ দিচ্ছেন। আমাদেরকে ঘরের বাইরে বেরিয়ে আসতে হবে। মিয়ানমারের মতো দেশে তারিখ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আজ ২২ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) এইদিনে পূর্ববর্তী প্রজন্ম সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছিল। সেনাবাহিনী হাতে রক্ত লাগিয়ে দমন করেছিল সেই বিক্ষোভ।' 

অন্যদিকে, রাষ্ট্র মালিকানাধীন টেলিভিশন এমআরটিভি বিক্ষোভকারীদেরকে আজ সোমবার বিক্ষোভের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বিক্ষোভকারীরা এখন সাধারণ মানুষকে উস্কানি দিচ্ছে। বিশেষ করে টিনেজ এবং যুব সমাজকে উসকে দিয়ে সংঘাতের পথে ঠেলে দিচ্ছে। এতে প্রাণহানী ঘটতে পারে তাদের। সামরিক জান্তা জানায়, বিক্ষোভে আহত এক পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন। 

সামরিক জান্তার জবাব দিয়ে থেট থেট হ্লাইং (২২) বলেন, 'আমি সামরিক জান্তা চাই না। আমি চাই গণতন্ত্র। আমাদের ভবিষ্যত আমরাই রচনা করবো। বিক্ষোভে আসতে আমার মা আমাকে বাধা দেননি। তিনি শুধু বলেছেন, দেখেশুনে চলো।'

এ অবস্থায় আন্তর্জাতিক সরবরাহ চেইন এবং স্থানীয় স্টোরগুলো আজ সোমবার বন্ধ রয়েছে।এছাড়াও,  ইয়াম ব্রান্ডস ইনকরপোরেশনের কেএফসি, ফুডপান্ডার প্রতিদিনের সরবরাহ,দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ান কোম্পানি গ্রাব সার্ভিস বন্ধ করা হয়েছে। 

অন্যদিকে, মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, 'কর্তৃপক্ষ সর্বোচ্চ সংযম প্রদর্শন করছে। মিয়ানমারের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশি কিছু দেশ হস্তক্ষেপ করছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন।'

প্রসঙ্গত, মিয়ানমারের সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলছে। চারদিকে থমথমে পরিস্থিতি। যুক্তরাষ্ট্রসহ বিদেশি কিছু দূতাবাসের সড়কে অবরোধ সৃষ্টি করেছেন ইয়াঙ্গুনের অধিবাসীরা। 


বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির

  


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০২:৪৫
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০২:৪৯
প্রিন্ট করুন printer

মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন

খাশোগিকে হত্যার অনুমোদন দেন সৌদি যুবরাজ

অনলাইন ডেস্ক

খাশোগিকে হত্যার অনুমোদন দেন সৌদি যুবরাজ
সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ও সাংবাদিক জামাল খাশোগি।

সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে ২০১৮ সালে হত্যার অনুমোদন দেন সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে শুক্রবার এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়, আমাদের মূল্যায়ন, তুরস্কের রাজধানী ইস্তাম্বুলে খাশোগিকে গ্রেফতার বা হত্যার জন্য অভিযানের অনুমোদন দিয়েছেন মোহাম্মদ বিন সালমান।

২০১৮ সালে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়। পরে তার লাশ গুম করা হয়। এ ঘটনায় সৌদি আরবের কৌঁসুলিরা পরে ১১ জনকে অভিযুক্ত করেন। বিচারে তাদের মধ্যে পাঁচজনকে ফাঁসি ও তিনজনকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। বাকিরা ছাড়া পেয়েছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রে থেকে ওয়াশিংটন পোস্ট-এ কলাম লিখতেন সাংবাদিক খাশোগি। সৌদি যুবরাজের কট্টর সমালোচক ছিলেন তিনি। শুরুতে খাশোগি খুন হওয়ার কথা অস্বীকার করে সৌদি আরব।

পরে দেশটির সরকার স্বীকার করে, কিছু উচ্ছৃঙ্খল কর্মকর্তা ওই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন। তবে সৌদি যুবরাজ এই হত্যায় তার সম্পৃক্ততার কথা শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছেন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:২৬
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:৪৫
প্রিন্ট করুন printer

মুকেশ আম্বানির বাড়ির সামনে বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি, চিঠিতে হুমকি

অনলাইন ডেস্ক

মুকেশ আম্বানির বাড়ির সামনে বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি, চিঠিতে হুমকি

ভারতের দক্ষিণ মুম্বাইয়ে মুকেশ আম্বানির বাড়ির কয়েক গজের মধ্যে বিস্ফোরক ভর্তি একটি গাড়ি উদ্ধার করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, গাড়িতে পাওয়া গেছে একটি হুমকি চিঠিও। এনিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজনকে জেরাও করেছে মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ।

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের কর্ণধার মুকেশ আম্বানির বাড়ির সামনে থেকে বৃহস্পতিবার নীল রঙের একটি পরিত্যক্ত গাড়ি উদ্ধার করা হয়। সেটি থেকে পাওয়া গেছে ২০টি জিলেটিন স্টিক। এছাড়াও চালকের পাশের আসনে পাওয়া গেছে একটি ব্যাগ। সেখান থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি হুমকি চিঠি।

আম্বানি পরিবারকে উদ্দেশ করে লেখা ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘নীতা ভাবি, মুকেশ ভাইয়া, এটা শুধু একটি ট্রেলার। পরের বার মালপত্র ভর্তি করে তোমাদের কাছে গাড়ি যাবে।’

মুম্বাই পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রিলায়েন্স কর্ণধারের বাড়ির সামনে যে গাড়িটি উদ্ধার হয়েছে, তার নম্বর প্লেটটি জাল। তবে গাড়ির চেসিস নম্বর ও অন্যান্য তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে, গাড়িটি চুরি করে আনা হয়েছিল মহারাষ্ট্রের বাইর থেকে। পাশাপাশি গাড়িতে পাওয়া জিলেটিন স্টিকগুলো কেনা হয়েছিল নাগপুরের একটি কোম্পানি থেকে।

মুকেশ আম্বানির বাড়ির আশপাশের এলাকার সিসিটিভি ফুটেজও পরীক্ষা করে দেখেছে পুলিশ। সেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি হুডওয়ালা পুলওভার পরে গাড়ি থেকে নেমেছে চালক। তারপর তিনি উধাও হয়ে যান। গাড়িটি এসেছিল ওরলির দিক থেকে।

এনিয়ে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘গোটা বিষয়টির তদন্ত করছে মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ। খুব শিগগিরই তদন্ত শেষ হবে।’

সূত্র : জিনিউজ

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:১৮
প্রিন্ট করুন printer

নাইজেরিয়ায় ৩ শতাধিক ছাত্রীকে অপহরণ করলো বন্দুকধারীরা

অনলাইন ডেস্ক

নাইজেরিয়ায় ৩ শতাধিক ছাত্রীকে অপহরণ করলো বন্দুকধারীরা
প্রতীকী ছবি

নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিমের জামফারা প্রদেশের একটি স্কুল হোস্টেল থেকে ৩১৭ ছাত্রীকে অপহরণ করেছে বন্দুকধারীরা। শুক্রবার রাজ্য পুলিশ এক বিবৃতির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

একজন শিক্ষক এবং অভিভাবক জানিয়েছেন, এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে গণঅপহরণের দ্বিতীয় ঘটনা এটি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষক জানিয়েছেন, ‘কমপক্ষে ৩০০ মেয়েকে তুলে নেয়া হয়েছে।’

প্রদেশটির তথ্য কমিশনার সুলায়মান তানাউ আনকা বলেছেন, ‘ঠিক কত বাচ্চাকে তুলে নেয়া হয়েছে, তা এই মুহূর্তে বলা সম্ভব নয়।’

তিনি আরও বলেন, অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা গুলি করতে করতে হোস্টেলে ঢুকে মেয়েদের নিয়ে যায়। তারা গাড়িতে এসেছিল বলে তথ্য পেয়েছি। নিরাপত্তাকর্মীরা তল্লাশি চালাচ্ছেন।’

গত সপ্তাহে একইভাবে বন্দুকধারীরা ৪২ জনকে হত্যা করে। এর মধ্যে ২৭ জন শিক্ষার্থী ছিলেন। এর আগে গেল বছরের ডিসেম্বরে অপহরণ করা হয় ৩০০ ছাত্রকে। পরে সরকার অপহরণকারীদের সঙ্গে আপস করে তাদের মুক্তির ব্যবস্থা করে।

সূত্র: আল-জাজিরা।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:০৩
প্রিন্ট করুন printer

মিয়ানমারে ব্যাপক সংঘর্ষ

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমারে ব্যাপক সংঘর্ষ

মিয়ানমারে এবার জান্তা সমর্থক ও জান্তা বিরোধীদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। বৃহস্পতিবার সংঘর্ষে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনের রাজপথ যেন পরিণত হয় রণক্ষেত্রে। 

সেনাবাহিনীর পক্ষে রাজপথে নেমে, বিক্ষোভকারীদের ওপর তুমুল হামলা চালান তারা বলে অভিযোগ উঠেছে।

ছুরিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জান্তাপন্থিদের এমন হামলায় হতবাক সবাই। বিক্ষোভকারীরা বলছেন, এ ঘটনাটি মিয়ানমারের পরিস্থতিকে আরও জটিল করে তুলবে। আন্দোলনকারী একটি গোষ্ঠী জানায়, প্রতিবাদের সঙ্গে সম্পর্কিত কারণে এ পর্যন্ত ৭শ' জনের বেশি মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাদের অভিযুক্ত করে সাজাও দেয়া হয়েছে।

এ অবস্থায় আরও কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন জান্তারিবোধীরা। শুক্রবারও তারা মিয়ানমারের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেন। গড়ে তোলেন প্রতিরোধ। ইয়াঙ্গুনে এবার অং সান সু চির বাসার সামনে গণতন্ত্রের দাবি নিয়ে বিক্ষোভ হয়।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:২৯
প্রিন্ট করুন printer

ভোট চুরিতে ইমরানের অধীনে এজেন্সিগুলো জড়িত: মরিয়ম নওয়াজ

অনলাইন ডেস্ক

ভোট চুরিতে ইমরানের অধীনে এজেন্সিগুলো জড়িত: মরিয়ম নওয়াজ
মরিয়ম নওয়াজ

পাকিস্তানে পাঞ্জাবের দাস্কা উপনির্বাচনে অনিয়ম নিয়ে বিতর্কের মধ্যে পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন)-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ বলেন, ভোট চুুরিতে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের অধীনে আসা এজেন্সিগুলো জালিয়াতিতে জড়িত ছিল।

বুধবার দেশটির গণমাধ্যম ডন-এর উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি আরও বলেন, জালিয়াতির পরও যখন তারা জিততে পারছিল না, তখন তারা ২০ কর্মকর্তাকে অপহরণ করে।  

গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন (ইসিপি) বলেছে, তারা সন্দেহ করছে যে ২০টি ভোট কেন্দ্রের ফলাফল মিথ্যা।

পিএমএল-এন নেতা দেশটির নির্বাচন সংস্থার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন যাতে জালিয়াতির সাথে জড়িত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

গত সপ্তাহে মরিয়ম বলেছিলেন, এনএ-৭৫ (দাস্কা) আসনের উপনির্বাচনের ফলাফলের বৈধতা নিয়ে সন্দেহ করা ইসিপি ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন সরকারের বিরুদ্ধে একটি ‘চার্জশিট’।

ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ যখন ঘোষণা করেছিল যে তারা নির্বাচনে জয়লাভ করেছে, তখন ইসিপি বলেছে যে তারা সন্দেহ করছে যে এনএ-৭৫ (দাস্কা) আসনের উপনির্বাচনে ২০টি ভোট কেন্দ্রের ফলাফল মিথ্যা হয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর