Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ আগস্ট, ২০১৯ ০৮:৪১

‘বাঁদর বাবা’র কাণ্ড; গাছের মাথায় খাওয়া-ঘুম-ধ্যান!

অনলাইন ডেস্ক

‘বাঁদর বাবা’র কাণ্ড; গাছের মাথায় খাওয়া-ঘুম-ধ্যান!
সংগৃহীত ছবি

গাছের মগডালে তাকালেই নজরে পড়ছে এক ব্যক্তি। লাল চাদরের উপর গাছের মাথায় বসে কখনও তিনি মোবাইলে কথা বলছেন, কখনও আবার ক্লান্ত হয়ে হাত-পা ছড়িয়ে শুয়ে পড়ছেন। এমনকী খাওয়াদাওয়া থেকে জামাকাপড় শুকোতে দেওয়া – সবই চলছে সেখানে। অদ্ভুত এসব কাণ্ডের কারণে স্থানীয়রা তাঁর নাম দিয়েছেন 'বান্দারিয়া বাবা' বা 'বাঁদর বাবা'। ভারতের উত্তরপ্রদেশের বাহারাইচের সুজোলিতে এ ঘটনা ঘটেছে। 

উত্তরপ্রদেশের বাহারাইচের সুজোলিতে হঠাৎ ওই ব্যক্তির দেখা মেলে। প্রথম দিন থেকেই পরণে সাধুর বেশ বছর ষাটেকের এই ব্যক্তির। গলায় একাধিক মালা। জানা গেছে,  মাস চারেক আগে বাহারাইচে যান তিনি। কিন্তু প্রথমে তাঁকে পুলিশ সেখানে ঘাঁটি গাড়তে বাধা দেন। বাধ্য হয় বাহারাইচ ছেড়ে চলেও যান বাঁদর-বাবা। কিছুদিন পর আবার ফিরে গিয়ে তিনি আশ্রয় নেন একটি গাছের ডালে।

এদিকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন এই বাঁদর-বাবাকে দেখতে। কিন্তু বাঁদর বাবার এই জনপ্রিয়তা বৃদ্ধিতে সমস্যায় পড়ছেন স্থানীয় পুলিশ-প্রশাসন। পুলিশের পক্ষ থেকে বারবার চেষ্টা করা হচ্ছে, ওই ব্যক্তিকে গাছ থেকে নামিয়ে আনার। কিন্তু সাফল্য আসছে না কিছুতেই। প্রতিবারই গাছ থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার ভয় দেখিয়ে পুলিশকর্মীদের পিছু হটতে বাধ্য করছেন ওই ব্যক্তি। তবে হাল ছাড়েনি পুলিশ। 

বাঁদর বাবার বলেন, 'হনুমানজির কৃপা রয়েছে আমার উপর। আমি গাছেই থাকি। এখানেই খাই, ঘুমোই। আবার গাছের ডালে বসেই ধ্যান ও হোম-যজ্ঞ করি। কোনও অসুবিধা হয়নি।' 

স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই ব্যক্তি পিলভিট জেলার বাসিন্দা। বেশ কয়েক বছর হরিদ্বারে ছিলেন তিনি। কিন্তু কী তাঁর আসল নাম, তা বলতে পারছেন না কেউ।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য