৩১ মে, ২০২২ ১৩:৫৫

ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান ডাকসুর সাবেক নেতাদের

অনলাইন ডেস্ক

ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান ডাকসুর সাবেক নেতাদের

ঐক্যবদ্ধভাবে দখলদারদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন ডাকসুর সাবেক নেতারা। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবে ডাকসুর সাবেক নেতাদের উদ্যোগে শিক্ষা বাঁচাও, শিক্ষাঙ্গণ বাঁচাও শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তারা এ আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেন, দেশের সকল শিক্ষাঙ্গন আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। শিক্ষা ব্যবস্থা এবং শিক্ষাঙ্গনকে বাঁচানো শুধুমাত্র ছাত্র সংগঠন বা রাজনৈতিক দলের দায়িত্ব নয়। এই দায়িত্ব সবার। দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা এবং শিক্ষাঙ্গনকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে আমরা ডাকসুর সাবেক নেতারা দেশের সকল ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবক, পেশাজীবী, ডাকসুসহ দেশের সকল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক-বর্তমান ছাত্র সংসদ নেতা, সাবেক-বর্তমান ছাত্র নেতাসহ দেশের সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধভাবে দখলদারদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, বিগত ১৩ বছর ধরে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা এবং শিক্ষাঙ্গণের পরিবেশ পরিকল্পিতভাবে ধ্বংস করার চেষ্টা করে যাচ্ছে বর্তমান ক্ষমতাসীন অবৈধ সরকার। নিজেদের শাসন টিকিয়ে রাখতে তারা দেশকে মেধাহীন করার সকল ব্যবস্থা করেছে। বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা থেকে শুরু করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশ্নপত্র ফাঁস এখন একটি স্বাভাবিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। এসব ঘটনায় ক্ষমতাসীন দল এবং এর সহযোগী ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের নাম প্রমাণসহ উঠে আসার পরও কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

মান্না বলেন, সর্বশেষ গত ২৪ এবং ২৬ মে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। তারা মধ্যযুগীয় কায়দায় নিষ্ঠুরভাবে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের রাস্তায় ফেলে পিটিয়েছে। এমনকি তারা কাপুরুষোচিতভাবে নারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। নারী শিক্ষার্থীদের ওপর এমন নির্মম হামলার ঘটনা পাকিস্তান আমলেও কখনো ঘটেনি। হামলার শিকার এসব বিরোধী ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা বর্তমানে রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি।   

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, ডাকসুর সাবেক ভিপি আসম আব্দুর রব, সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান, সাবেক জিএস খায়রুল কবির খোকন, সাবেক এজিএস নাজিম উদ্দিন আলম ও সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর