Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:৩০
ইনফো টিপস
কম্পিউটারের সমস্যা
কম্পিউটারের সমস্যা

কম্পিউটারের সমস্যা হলেই আমরা সবাই এক্সপার্টের সাহায্য নেই। কম্পিউটারের এমন কিছু সমস্যা রয়েছে যা কোনো প্রফেশনালের সাহায্য ছাড়াই করা সম্ভব।

তাছাড়া দূরে থেকেও কম্পিউটারের সমস্যার সমাধান করতে পারেন

 

অনেকেই কম্পিউটার ব্যবহারে অদক্ষ হওয়ার কারণে নানা ধরনের বিড়ম্বনার শিকার হন। তখন সমস্যার সমাধানে নিতে হয় প্রফেশনালের সাহায্য। অনেকেই অভিযোগ করেন কম্পিউটার বন্ধ হতে অনেক সময় নেয়। এ সমস্যার সমাধানটি নিজেই করতে পারেন। তা ছাড়া কম্পিউটারের সমস্যার সমাধান যে ওই কম্পিউটারের সামনে বসেই করতে হবে, এমনটিও নয়। দূরে থেকেও আপনি আপনার সহকর্মী বা বন্ধুর কম্পিউটারের সমস্যার সমাধানও করতে পারবেন সহজেই।

 

সাধারণত কম্পিউটার চালনায় অপারেটিং সিস্টেমে অনেক সফটওয়্যারের ব্যবহার হয়। আর সফটওয়্যারের ডেটা মিসিং হলেই কম্পিউটারের মাথায় গণ্ডগোল দেখা দেয় তা আমাদের কম-বেশি সবারই জানা। মনে রাখতে হবে. কম্পিউটার বন্ধ হওয়ার সময় অপারেটিং সিস্টেম এবং সফটওয়্যারের প্রসেসিং বন্ধ হয়। যদি আপনার কম্পিউটার মনিটরে শাটডাউনের সময় Shutting down বার্তাটি অনেকক্ষণ ধরে দেখা যায় তাহলে বুঝতে হবে অপারেটিং সিস্টেমের প্রসেসিং ঝামেলা। কিংবা programs need to close বার্তা দেখিয়ে তালিকার কিছু প্রোগ্রাম বন্ধ করতে বলবে। তখন যদি সেগুলো কাজ না করে তবে বুঝবেন সফটওয়্যারের সমস্যা। আবার অনেক সময় উইন্ডোজ আপডেট নিতে গিয়ে কম্পিউটার বন্ধ হতে অনেক সময় নেয়। সমস্যা যাই হোক না কেন দ্রুত সমাধানের চেষ্টা করুন।

 

আপনার কম্পিউটারের প্রসেসিং বন্ধ করার সময় যদি Shutting down বার্তাটি দীর্ঘক্ষণ দেখায় তবে উইন্ডোজ রেজিস্ট্রির HKEY/OCAL/MACHINE থেকে SOFTWARE থেকে Microsoft যান| Windows থেকে CurrentVersion এর Policies থেকে Szstem-এ গেলে VerboseStatus নামের এন্ট্রি দেখতে পাবেন। এবার সেখানে ক্লিক করে এর Value Data তে ১ লিখে দিন। ঠবত্নড়ংবঝঃধঃঁং নামের এন্ট্রি না পেলে এই নামে নতুন একটি এন্ট্রি খুলে তার মান ১ লিখে দিতে হবে।

 

তাছাড়া কম্পিউটার বন্ধে সফটওয়্যারগত সমস্যাও হতে পারে। এজন্য খেয়াল করবেন, আপনার কম্পিউটার বন্ধের সময় programs need to close বার্তাটি দেখায় কি না। যদি দেখায় তাহলে বুঝবেন তালিকার অনেক প্রোগ্রাম বন্ধ করতে হবে। এ ছাড়াও অনেক সময় Force shutdown-এ ক্লিক করার পরও তা বন্ধ হতে চায় না। তাই উইন্ডোজ ৭-এর স্টার্ট মেন্যুর সার্চে ঘরে msconfig লিখুন। msconfig. বীব তে ক্লিক করইে সিস্টেম কনফিগারেশন খুলে যাবে।

এখানকার eneral ট্যাবের Selective startup থেকে Load Startup-এর টিক চিহ্ন তুলে দিন। এবার Services ট্যাবের নিচে Hide all Microsoft Services-এ টিক চিহ্ন দিয়ে Disable All-এ ক্লিক করুন। OK-করলে উইন্ডোজ কনফিগার পরিবর্তনের জন্য কম্পিউটার রিস্টার্ট চাইবে। কম্পিউটার রিস্টার্ট করলেই কম্পিউটারের সমস্যার সমাধান হবে। এক্ষেত্রে অনেক সময় প্রয়োজনীয় কিছু মাইক্রোসফট সার্ভিসও বন্ধ করতে হতে পারে। এতে উইন্ডোজের কিছু সেটিংস পরিবর্তন হয়। এ সমস্যায় না ঘাবড়ে msconfig-এ আবার গিয়ে Services ট্যাবের যে সেবাটি দরকার তাতে ক্লিক করে OK-করলেই সমস্যা দূর হবে।

 

আবার অনেক সময় কম্পিউটারে ইন্টারনেট কানেকশন থাকার উইন্ডোজ আপডেট অপশন চালু থাকলে প্রোগ্রাম আপডেট হওয়ার কারণে বন্ধ হতে সময় নেয়। তাই উইন্ডোজের স্টার্ট মেন্যুতে গিয়ে Control Panel থেকে All Control Panel Items-এ গিয়ে Windows Update-এ যান। বাঁয়ের Change settings-এ ক্লিক করুন। Important updates এ ক্লিক করে Never check for updates (not recommended) নির্বাচন করে ওকে করলেই বন্ধ হবে।

 

অনেক সময় কম্পিউটারের সমস্যায় কাছে না থাকার কারণে সমাধানে সময় লাগে। দূরে থেকেও যে কম্পিউটারের সমস্যার সমাধান করা সম্ভব তা অনেকেরই জানা নেই। ধরুন, আপনার সহকর্মী বা বন্ধুর কম্পিউটারে সমস্যা হয়েছে। আপনি দূরে থেকেও এর সমাধান করে দিতে পারবেন। এজন্য যিনি দরকারি কাজটি করতে পারছেন না তাকে বলুন ‘টিম ভিউয়ার’ নামের সফটওয়্যার ইনস্টল করে নিতে। সফটওয়্যার ইনস্টল করে একটি ব্যবহারকারীর আইডি এবং পাসওয়ার্ড দেখাবে। সেই ইউজার আইডি আর পাসওয়ার্ড সংগ্রহ করুন। এবার আপনার কম্পিউটারের টিম ভিউয়ার সফটওয়্যার চালু করে ডায়ালগ বক্সে গিয়ে সেখানে পার্টনার আইডি দিয়ে ‘কানেক্ট টু পার্টনার’ করলেই আপনার কম্পিউটারের পর্দায় দূরের সে কম্পিউটারের ডেস্কটপ দেখাবে।

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow