শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৩ নভেম্বর, ২০১৫ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ নভেম্বর, ২০১৫ ২৩:৪৯

রাজধানীতে তীব্র যানজট

ভোগান্তি হাসপাতালে নেওয়ার পথে দুজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জনসভাকে কেন্দ্র করে গতকাল নগরীজুড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে দুর্ভোগে পড়েন অফিস ফেরত মানুষ ও সাধারণ যাত্রীরা। এ ছাড়া যানজটের কবলে পড়ে বিড়ম্বনা পোহাতে হয় অনেক রোগী ও তাদের স্বজনদের। জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে বেলা ২টার সমাবেশ ঘিরে  বেলা ১১টা থেকেই নেতা-কর্মীরা মিছিল নিয়ে সমাবেশ স্থলে আসতে থাকেন। এতে ওই এলাকার সঙ্গে সংযুক্ত বিভিন্ন সড়ক মিছিলকারীদের দখলে চলে যায়। একই সঙ্গে নেতা-কর্মীদের বহনকারী গাড়িগুলো সোহরাওয়ার্দীর আশপাশের সড়কে দাঁড় করিয়ে রাখায় ওই এলাকার অন্যান্য গণপরিবহন চলাচল বাধাগ্রস্ত হয়। সমাবেশ শুরুর পর বিকাল সাড়ে ৩টা নাগাদ উদ্যানের বেশির ভাগ ভরে গেলে অনেক নেতা-কর্মী প্রধান সড়কেই জটলা পাকিয়ে অবস্থান নেয়। ফলে যানজট পরিস্থিতি চরমে পৌঁছায়। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর আগমন ও ফিরে যাওয়ার সময় কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউতে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হলে চরম ভোগান্তিতে পড়েন নগরবাসী। মৎস্য ভবনের সামনে, রূপসী বাংলা হোটেল এবং এলিফ্যান্ট রোড-কাঁটাবন মোড় এলাকায় সাধারণ যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে রাজধানীর মহাখালী, বিজয় সরণি, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার শাহবাগ, পল্টন, মতিঝিল, গুলিস্তানসহ নগরীর বিভিন্ন স্থানে যানজট চরমে পৌঁছায়।  এদিকে বিচ্ছিন্ন ঘটনায় অসুস্থ দুজন হাসপাতালে যাওয়ার সময় যানজটের কবলে পড়ে পথেই মারা যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাদের একজন জজকোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট এনামুল হক (৫০) ও অপরজন পান ব্যবসায়ী আবদুল্লাহ (২৫)। জানা গেছে, গতকাল দুপুরে রাজধানীর ওয়ারীর আর কে মিশন রোডের ৪/৩ নম্বর বাড়িতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন এনামুল হক। বেলা ৩টার দিকে তাকে নিয়ে অটোরিকশায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের উদ্দেশ্য রওনা হন তার স্ত্রী নিলুফা বেগম ও মেয়ে আয়েশা হেলেন। পথে ব্যাপক যানজটের কবলে পড়েন তারা। পরে একটি রিকশা নিয়ে বিকাল সোয়া ৫টায় ঢামেক হাসপাতালে পৌঁছান। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক হার্ট অ্যাটাকের কারণে এনামুলের মৃত্যু হয়েছে বলে ঘোষণা করেন। শ্যামলীতে দুর্ঘটনায় আহত আবদুল্লাহকে পথচারীরা উদ্ধার করে প্রথমে পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে ঢামেক হাসপাতালে নিতে বলা হয়। বেলা দেড়টায় পঙ্গু হাসপাতাল থেকে রওনা হয়ে বিকাল ৪টায় ঢামেক হাসপাতালে পৌঁছান। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক আবদুল্লাহকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত আবদুল্লাহর গ্রামের বাড়ি বরিশালের মুলাদীতে।


আপনার মন্তব্য