Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ জুলাই, ২০১৯ ০১:৩৪

রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের শিক্ষক বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের শিক্ষক বরখাস্ত

সেফুদাকে নিয়ে প্রশ্নপত্র করায় রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের এক শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। ওই শিক্ষকের নাম জাহিনুল হাসান।

গতকাল ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের পরিচালনা পর্যদের সদস্য অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক এ তথ্য জানান। অস্ট্রিয়া প্রবাসী বাংলাদেশি সেফাতউল্লাহ ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে ‘সেফুদা’ নামে পরিচিত। তাকে নিয়ে প্রশ্নপত্র করায় সমালোচনার মুখে ঢাকার রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ। 

প্রশ্নপত্রে কেন বিতর্কিত ওই ব্যক্তির নাম ও কর্মকাণ্ড  তুলে ধরা হয়েছে, তা তদন্ত করতে কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল মাতলুবুর রহমানকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। কমিটিকে ১৮ জুলাই প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক জানান, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদ অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।

প্রসঙ্গত, গত ৪ জুলাই অনুষ্ঠেয় রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের (স্কুল শাখা) দশম শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ের প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার প্রশ্নে বলা হয়, অদ্ভুত ধরনের এক মানুষ সেফাতউল্লাহ সেফুদা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সে বিভিন্ন রকম কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে। তরুণদের উদ্দেশে সে বলে- ‘মদ খাবি মানুষ হবি, দেখ আমি আরও এক গ্লাস খাইলাম।’ তার কথায় প্রতিবাদ করে একজন বিজ্ঞ আলেম বললেন, তার মধ্যে যদি ইমানের সর্বপ্রথম ও সর্বপ্রধান বিষয়ের প্রভাব পরিলক্ষিত হতো, তাহলে সে হয়ে উঠত একজন আত্মসচেতন ও আত্মমর্যাদাবান ব্যক্তি।

এই উদ্দীপকের ভিত্তিতে ৪টি প্রশ্ন করা হয়। এ প্রশ্নপত্রের ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে। অনেকেই প্রশ্নপত্র তৈরির সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর