শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২৩:৪৩

অনলাইন ক্লাস থেকে শিক্ষার্থীদের বাদ না দেওয়ার দাবি অভিভাবকদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

মহামারীর মধ্যে পর পর দুই মাস টিউশন ফি পরিশোধ না করলে অনলাইন ক্লাস থেকে বের করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে মাস্টারমাইন্ড স্কুল। এ ছাড়া রেজিস্টার খাতা থেকেও শিক্ষার্থীদের বাদ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এদিকে যেসব অভিভাবক করোনাকালে টিউশন ফি পরিশোধে ব্যর্থ হয়েছেন তাদের বাচ্চাদেরও অনলাইন ক্লাসের সুযোগ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন অভিভাবকরা। গতকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তারা। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, গত ১৪ সেপ্টেম্বর এক নোটিসে মাস্টারমাইন্ড স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে মাত্র দুই মাসের বকেয়া বেতন থাকলেই ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের নাম রেজিস্টার থেকে বাদ দেওয়া হবে। অথচ প্রতিষ্ঠার পর থেকে মাসিক বেতন ছাড়াও ছয় মাস পর পর নিয়মিত বেতন গ্রহণ করত কর্তৃপক্ষ।

বক্তারা বলেন, করোনায় অনেক অভিভাবক আর্থিকভাবে সংকটে রয়েছেন। তাই কোনো কোনো অভিভাবক যথাসময়ে টিউশন ফি পরিশোধ করতে পারেননি। করোনার সময়ে ইন্সটলমেন্টে টিউশন ফি পরিশোধের সুযোগ চেয়েছেন অভিভাবকরা।

সংবাদ সম্মেলনে জিটিভির এডিটর ইন চিফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, স্কুলটিতে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের অভিভাবক আমানুল আবেদীন দিদার, মনির সরকারসহ অন্যরা বক্তব্য দেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন অভিভাবক মাহিদ হোসেন।

বক্তারা আরও বলেন, স্কুলটি অভিভাবকদের সঙ্গে নিষ্ঠুর আচরণ করছে। দেনা-পাওনা নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে এমন সম্পর্ক থাকতে পারে না। করোনাকালে অনেক অভিভাবক যথাসময়ে বেতন-ভাতা পাচ্ছেন না। তাই টিউশন ফি নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষকে মানবিক হওয়ার আহ্বান জানান বক্তারা।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর