প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১১:৫৭

আরএফএল পাইপ অ্যান্ড ফিটিংসে ব্যবহৃত হচ্ছে লেজার প্রিন্ট

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আরএফএল পাইপ অ্যান্ড ফিটিংসে ব্যবহৃত হচ্ছে লেজার প্রিন্ট

ক্রেতাদের সুবিধার্থে ‘আরএফএল পাইপ অ্যান্ড ফিটিংস’ এখন ব্যবহৃত হচ্ছে লেজার প্রিন্ট। নকল এড়াতে ও পণ্যের তথ্য বিকৃতি রোধে কালির প্রিন্টের (ইনজেক্ট প্রিন্ট) পরিবর্তে এখন লেজার প্রিন্ট ব্যবহৃত হচ্ছে।  

আরএফএল প্লাস্টিকসের পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, সাধারণত কালির প্রিন্ট ব্যবহার করে পণ্যের গায়ে দাম, আইএসও সনদ নম্বর, বিএসটিআইয়ের সিল, পণ্যের লোগো, পণ্যের ধরণসহ নানা তথ্য লেখা হয়। কিন্তু এ কালি সহজেই পরিবর্তন করা যায়। 

তিনি আরও বলেন, এর ফলে তথ্য পরিবর্তন বা বিকৃত করার সুযোগ থাকে। এছাড়া কালির প্রিন্ট সহজলভ্য হওয়ায় নিম্নমানের পাইপ ও ফিটিংসে আরএফএল সদৃশ্য লোগো ব্যবহার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এজন্য ক্রেতাদের সুবিধার্থে এবং নকল এড়াতে এখন থেকে ধারাবাহিকভাবে আরএফএল পাইপ অ্যান্ড ফিটিংসের সকল পণ্যে লেজার প্রিন্ট ব্যবহার করা হচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর