শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ০১:১৯

গাউছিয়ার সদস্যদের কাঁধে ভর করে শ্মশানে গেলেন প্রফুল্ল

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

Google News

গাউছিয়া কমিটির সদস্যদের কাঁধে ভর করে শ্মশানে গেলেন কুন্ডেশ্বরী ঔষধালয়ের কর্ণধার প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহ (৮০)। কভিডে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করা তার লাশ হাসপাতাল থেকে শ্মশান পর্যন্ত সব কাজ গাউছিয়ার সদস্যরাই করেন।

গাউছিয়া কমিটির লাশ দাফন কাজের সমন্বয়ক মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার বলেন, প্রফুল্ল রঞ্জনের ছেলে রাজীব সিংহ তাকে ফোন করে সৎকার কার্যক্রম সম্পন্ন করতে অনুরোধ জানান। ফোন পেয়ে ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল থেকে লাশ অ্যাম্বুলেন্সযোগে রাউজানের গ্রামের বাড়িতে নেওয়া হয়। সেখানে কুন্ডেশ্বরী প্রাঙ্গণে তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। পরে তারা সৎকার কার্যক্রম শুরু করে। লাশের গোসল শেষে পোশাক পরিয়ে খাটিয়ায় তুলে মরদেহ চিতায় পাঠানো হয়। 

 

প্রসঙ্গত. মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহের বাবা নূতন চন্দ্র সিংহ যুদ্ধাপরাধী সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বাহিনীর হাতে নির্মম অত্যাচারে শহীদ হন। প্রফুল্ল রঞ্জন যুদ্ধাপরাধবিরোধী আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের অন্যতম সাক্ষী ছিলেন। ১৯৭১ সালের ১৩ এপ্রিল সাকা চৌধুরী পাকবাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে কুে শ্বরীর প্রতিষ্ঠাতা নূতনপ্রন্দ্র সিংহকে হত্যা করে।

এই বিভাগের আরও খবর