শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ জুন, ২০২১ ০০:০৭

ছুটির দিনেও খোলা বেনাপোল কাস্টম

২ কোটি ৩০ লাখ টাকার রাজস্ব আয়

বেনাপোল প্রতিনিধি

Google News

করোনা ঝুঁকির মধ্যে সরকারি ছুটির দিনেও গতকাল  খোলা  ছিল বেনাপোল কাস্টম হাউস। দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য সচল থাকলেও ব্যবসায়ীদের উপস্থিতি ছিল খুব কম। এতে বিগত কয়েক মাসে রাজস্ব আয় হয়েছে ২ কোটি ৩০ লাখ টাকা। বেনাপোল বন্দর থেকে কিছু মালামাল খালাস হয়েছে। তবে তেমন একটা আশানুরূপ ফল আসেনি রাজস্ব আদায়ে। কাস্টমস সূত্র বলছে জুন ক্লোজিং এ সরকারের রাজস্ব আয় বাড়াতে সরকারি ছুটির দিনেও বেনাপোল কাস্টমস হাউস ও স্থল বন্দর খোলা রাখার নির্দেশনা দেন কাস্টমস কমিশনার আজিজুর রহমান। কাস্টমস কর্মকর্তারা অফিস খোলা রেখে সারা দিন তাদের দফতরে সামান্য কিছু বিল অফ এন্ট্রির কাজ করেছেন। কাস্টমস হাউসে পণ্যের শুল্কায়ন ও মালামাল কায়িক পরীক্ষা হয়েছে যথাসামান্য। বন্দর থেকে মালামাল খালাশ হলেও ভারত থেকে ২১৮ ট্রাক মালামাল আমদানি হয়েছে। ভারতে রপ্তানি হয়েছে ১৪২ ট্রাক মালামাল।

 জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ২০২০-২১ অর্থ বছরে ৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকার  লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়।

করে।

 বেনাপোল কাস্টমস হাউসের জন্য।

 ভয়াবহ করোনার মধ্যেও বেনাপোল কাস্টমস হাউস ৪ হাজার ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব আদায় করেছে গতকাল পর্যন্ত। যার প্রবৃদ্ধি হার ছিল ৫৭%। বেনাপোল কাস্টমস’র অতিরিক্ত কমিশনার ড. নেয়ামুল ইসলাম বলেন, সরকারি ছুটির দিনেও কাস্টমস ও বন্দর খোলা রাখা হয়েছে রাজস্ব আয়ের স্বার্থে। ব্যবসায়ীদের উপস্থিতি ছিল খুবই কম। তবে  দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য ছিল আশানুরূপ। দেশের স্বার্থে ছুটির দিনেও কাস্টমস ও বন্দর খোলা রাখা হয়েছে। বেনাপোল কাস্টম হাউসের কমিশনার মো. আজিজুর রহমান জানান, করোনার ঝুঁকির মধ্যেও সরকারি ছুটির দিনে কাস্টমস হাউস ও বন্দর খোলা রাখা হয়েছে শুধুমাত্র রাজস্ব আয় বাড়াতে। গতকাল সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত  ২ কোটি ৩০ লাখ টাকার আয় হয়েছে। ২১৮ ট্রাক পণ্য আমদানি হয়েছে ও রপ্তানি হয়েছে  ১৪২ ট্রাক পণ্য।

এই বিভাগের আরও খবর