শিরোনাম
প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি, ২০২০ ২০:১১

ঝালকাঠিতে ৪ মামলায় কারাগারে সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

ঝালকাঠিতে ৪ মামলায় কারাগারে সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি

ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাদিসুর রহমান মিলনকে ৩ দিনের রিমান্ড শেষে জেলা হাজতে পাঠানো হয়েছে। শুত্রবার দুপুরে ঝালকাঠি সদর থানা থেকে আদালতে পাঠালে তার জামিন না মঞ্জুর করে আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠায়। 

ঝালকাঠি সদর থানার এসআই সরোয়ার হোসেন বলেন, ৩ দিনের রিমান্ডের সময় শেষ হওয়ায় সকাল সাড়ে ১০টায় সদর থানা থেকে মিলনকে আদালতে নেওয়া হয়। ঝালকাঠি জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক এএইচ এম ইমরানুর রহমান তার জামিনাবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। রিমান্ডকালে তার কাছ থেকে আর কোন তথ্য পাওয় যায়নি। 

ঝালকাঠি সদর ওসি মো. খলিলুর রহমান জানান, এক ঠিকাদারের দায়ের করা চাঁদাবাজির মামলায় মঙ্গলবার রাতে শহরের ডাক্তারপট্টি এলাকার মিলনের বাসায় অভিযানকালে তাকে গ্রেফতারের সময় তার বাসা থেকে ১৫টি দেশিয় ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। চাঁদাবাজি মামলায় অভিযুক্ত মিলন ছাড়াও পরে তার আরও ৫ সহযোগীকে গ্রেফতার করে করা হয়। প্রথমবারের ১৫টি  দেশীয় ধারালো অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় এসআই সরোয়ার হোসেন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। বুধবার মিলনকে আদালতে সোপর্দ করলে তিন দিনের রিমান্ডের আদেশ দেয় আদালতের বিচারক। বাকি আসামিদের আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। রিমান্ডে থাকাকালে তার দেওয়া স্বীকারোক্তিতে বুধবার রাতে মিলনকে সাথে নিয়ে পুলিশ দ্বিতীয় দফায় অভিযান করলে তার বাসায় লুকানো অবস্থায় ২টি দেশীয় পাইপ গান ও ২ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সদর থানার এস আই দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে মিলনকে আাসামী করে অস্ত্র আইনে আরও একটি মামলা দায়ের করে। 

অপরদিকে বুধবার বিকেলেই এলজিইডির হিসাব রক্ষক স্বপন কুমার বাদী হয়ে তাকে মারধরের অভিযোগে মিলনকে আসামি করে ঝালকাঠি সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ নিয়ে মিলনের বিরুদ্ধে ৩ দিনের ব্যবধানে ঝালকাঠি  সদর থানায় ৪টি মামলা দায়ের হয়েছে যার মধ্যে দুটি মামলার বাদী পুলিশ।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য