শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ জানুয়ারি, ২০২০ ১৮:২৭
আপডেট : ২৪ জানুয়ারি, ২০২০ ১৮:৫০

গৃহবধূকে নির্যাতন

৯৯৯-এ ফোন করায় হুমকি, জামিনে মুক্ত আসামি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

৯৯৯-এ ফোন করায় হুমকি, জামিনে মুক্ত আসামি

ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার নোয়াগ্রামে এক গৃহবধূকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের ঘটনায় ৯৯৯ ফোন করে পুলিশের সহযোগিতা চাওয়ায় হুমকি দিয়েছেন আসামিরা। 

বাদীর ভাতিজা মোসলেম মিয়াকে (৩২) হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে আলোচিত এ মামলার আসামিরা বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন।

জানা যায়, নোয়াগ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রীকে কু-প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় গত রবিবার পাশের বাড়ির শরীফ ডাক্তারের বাড়িতে ডেকে নিয়ে ‘চুরির অপরাধ’ দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালানো হয়। নির্যাতন চলাকালে ওই গৃহবধূর আর্তচিৎকারে মোসলেম মিয়া নামে তার এক ভাতিজা চাচিকে বাঁচানোর জন্য ৯৯৯ ফোন করেন। ওই ফোন পেয়ে নবীনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই গৃহবধূকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় স্বামী নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে সোমবার রাতে শরীফুল ইসলাম ওরফে শরীফ ডাক্তার, তার স্ত্রী সীমা আক্তার এবং দুই ভাই শাহেদ সরকার ও জনি সরকারকে আসামি করে নবীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার আসামিরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (নবীনগর) এ হাজির হয়ে জামিন চাইলে বিজ্ঞ আদালত আসামিদের জামিন মঞ্জুর করেন। 

বাদীর ভাতিজা মোসলেম মিয়া বলেন, ৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশের সহযোগিতা চাওয়ায়, আসামিরা জামিন পেয়েই আমাকে যেখানে পাবে সেখানেই হত্যা করা হবে বলে হুমকি দিচ্ছেন। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী হাসান বলেন, বাদীর ভাতিজাকে হুমকি দেওয়ার ঘটনাটি শোনার সঙ্গে সঙ্গেই ওসিকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার কঠোর নির্দেশ দিয়েছি। পাশাপাশি চিকিৎসাধীন ওই গৃহবধূর উন্নত চিকিৎসার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতাও করা হবে। 

নবীনগর থানার ওসি রনোজিত রায় বলেন, মোসলেম ফোনে আমাকে হুমকির ঘটনাটি জানানোর পরই তার নিরাপত্তার জন্য বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়েছি।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য