শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:৫৭
আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২১:০৪

ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৬ ছাত্রীকে উত্যক্তের লিখিত অভিযোগ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৬ ছাত্রীকে উত্যক্তের লিখিত অভিযোগ
প্রতীকী ছবি

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে সরকারি সামসুর রহমান কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়ামিন শিকদার ও ছাত্রলীগ নেতা মারুফের বিরুদ্ধে ৬ জন ছাত্রীকে উত্যক্ত করার লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৬ জন ছাত্রী লিখিত অভিযোগ করেছেন।

৬ ছাত্রীর লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, গত সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ক্যান্টিনে যাওয়ার সময় আমাদের পথ গতিরোধ করেন ইয়ামিন শিকদার ও মারুফের নেতৃত্বে কয়েকজন ছাত্র। এ সময় তারা আমাদের বাজে প্রস্তাব করেন। একজন ছাত্র প্রপোজ করেন ও মোবাইলে ভিডিওচিত্র ধারণ করেন। এই নিয়ে এখন আমাদের পরিবার চিন্তিত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ছাত্র বলেন, ইয়ামিন শিকদার বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দেয়। পথে ডিস্টার্ব করে। এর আগেও কলেজের ৩ ছাত্রীকে উত্যক্ত করায় তারা কলেজ ছেড়ে অন্য কলেজে গিয়ে ভর্তি হয়েছে। এরা দলবেধে রাস্তায় দাঁড়িয়ে বিভিন্ন মেয়েদের উত্যক্ত করে। ছাত্রীরা লোকলজ্জার ভয়ে কারো কাছে বলতে পারে না। কলেজের ক্ষমতা পেয়ে, ক্ষমতার দাপটে কলেজের শিক্ষার্থীরা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। গত সোমবার তারা এই কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ৬ ছাত্রীকে উত্যক্ত করায় তারা কলেজ অধ্যক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। তবে এর আগে কেউ সাহস দেখায় নি তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করার।  

জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মহাসীন মাদবর বলেন, আমি এ ঘটনাটি শুনেছি। এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ এখন পর্যন্ত পাইনি। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কখনই মেয়েদের শ্লীলতাহানি, ইভটিজিং প্রশ্রয় দেয়নি। যদি এই ধরনের কোনো ঘটনা ঘটে তাহলে তাকে অবশ্যই অব্যাহতি দেওয়া হবে।

কলেজ অধ্যক্ষ মো. ফয়জুল হক বলেন, কলেজের ৬ জন ছাত্রী অভিযোগ করেছে যে- কয়েকজন ছাত্র তাদেরকে উত্যক্ত করেছে। আমি সাথে সাথেই শিক্ষক পরিষদের মিটিং দেই এবং ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করে দেই। দুই কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার কথাও বলে দেই। তারা প্রতিবেদন দিলেই আমরা আমাদের ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। প্রতিবেদনের পরই প্রশাসনের সাথে কথা বলব, পুলিশের সাথে কথা বলব। 

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য