শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ নভেম্বর, ২০২০ ১৩:০৬
আপডেট : ২৯ নভেম্বর, ২০২০ ১৩:১৩
প্রিন্ট করুন printer

বাগেরহাটে শিশুকে অপহরণ করে হত্যা, ৩ জনের যাবজ্জীবন

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটে শিশুকে অপহরণ করে হত্যা, ৩ জনের যাবজ্জীবন
পুলিশের সাথে যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত আসামিরা।

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার বিশারীঘাটা গ্রামে ৩ মাসের শিশু আব্দুল্লাহকে অপহরণ করে মুক্তিপণ নিয়ে হত্যার ঘটনায় তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরো ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

রবিবার দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে বাগেরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল- ২ এর বিচারক জেলা জজ মো. নূরে আলম এ রায় দেন।

রায় প্রদানের সময় আসামিরা কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। আসামিরা হলেন-মো. হৃদয় ওরফে রাহাত হাওলাদার (২১), মো. মহিউদ্দিন হাওলাদার (২২) ও মো. ফায়জুল ইসলাম (২৮) । তাদের সবার বাড়ি মোরেলগঞ্জ উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে।

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, গত বছরের ১১ মার্চ রাত ৩টার দিকে মোরেলগঞ্জ উপজেলার বিশারীঘাটা গ্রামের রেশমা বেগম তার ৩ মাসের শিশু আব্দুল্লাহকে বুকের দুধ খাইয়ে স্বামী মো. সিরাজুল ইসলাম সোহাগের সাথে ঘুমিয়ে পড়েন। ঘুমন্ত মা-বাবার কোল থেকে রাত সাড়ে ৩টার দিকে দুর্বৃত্তরা শিশুকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। ঘুম থেকে জেগে তারা দেখতে পান বিছানায় শিশু আব্দুল্লাহ নেই। ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও নেই। জানালা ও দরজা খোলা রয়েছে। ঘরের অন্যান্য রুমের সকল দরজা বাইরে থেকে আটকে রেখেছে দুর্বৃত্তরা।

দুধের শিশুটিকে কীভাবে অপহরণকারীরা নিয়ে গেছে কেউ বুঝতেই না পেরে পুলিশকে খবর দেয়। ওই দিনই অপহৃত শিশুটির বাবা বাদী হয়ে মোরেলগঞ্জ থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে মামলা দায়ের করে। পরে শিশুটির মুক্তির জন্য মোবাইল ফোনে পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে দুর্বৃত্তরা। মুক্তিপণের দাবিতে করা মোবাইল ফোনটির সূত্র ধরে শিশুটিকে উদ্ধারে পুলিশ অভিযান শুরু করে।

এই সময়ের মধ্যে শিশুকে ফিরে পেতে বাবা মো. সিরাজুল ইসলাম সোহাগ অপহরণকারীদের চাহিদা মতো ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণও পরিশোধ করে দেয়। মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে প্রধান আসামি মো. হৃদয় ওরফে রাহাত হাওলাদারসহ অন্য আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

ঘটনার ৭ দিন পর  প্রধান আসামি মো. হৃদয়ের দেখানো মতে মোরেলগঞ্জ উপজেলার বিশারীঘাটা গ্রামের কাচারিবাড়ি এলাকার একটি মৎস্য খামারের টয়লেটের শেফটি ট্যাংকের ভেতর থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোরেলগঞ্জ থানার এসআই মো. আব্দুল মতি দীর্ঘ তদন্ত শেষে গত বছরের ৫ অক্টোবর আদালতে প্রধান আসামি মো. হৃদয়সহ ৩ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত ২৫ জনের সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে ৩ ঘাতককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

মামলার বাদী শিশুটির বাবা মো. সিরাজুল ইসলাম সোহাগ, মা রেশমা বেগম ও রাষ্ট্রপক্ষের কৌশলী এপিপি রণজিৎ কুমার মণ্ডল রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে আসামি পক্ষের কৌশলী মো. এনামুল হেসেন জানান, তার মক্কেল আদালতে ন্যায় বিচার পায়নি। সেকারণে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:২৮
প্রিন্ট করুন printer

বানারীপাড়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোর্থী প্রার্থী মিন্টুসহ ৩ জন বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বানারীপাড়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোর্থী প্রার্থী মিন্টুসহ ৩ জন বহিষ্কার

বরিশালের বানারীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জিয়াউল হক মিন্টুসহ তিনজনকে দল থেকে বহিষ্কার এবং একজনের সদস্য পদ বাতিলের সুপারিশ কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের নির্দেশে বুধবার সন্ধ্যায় বানারীপাড়ায় দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের এক সভায় তাদের চূড়ান্ত বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়ে কেন্দ্রে রেজুলেশন পাঠানো হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম সালে মঞ্জু মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক বিশেষ বর্ধিত সভার সিদ্ধান্ত রেজুলেশন আকারে তাৎক্ষণিক (ই-মেইল) কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের পাঠানো হয়।  

উপজেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক অধ্যাপক মো.আশ্রাফুল হাসান সুমন স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বানারীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো.জিয়াউল হক মিন্টুকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। 

এছাড়া আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধাচারণ করে বিদ্রোহী প্রার্থী মো. জিয়াউল হক মিন্টুকে অব্যাহত সহযোগিতা করায় পৌর আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক মো. মাহফুজুল হক মাসুম ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমানকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়। বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষাবলম্বন-সহ দলীয় শৃঙ্খলা বিনষ্টে জড়িত থাকায় মো. জামাল হোসেন সাইয়েদের নামে একজনের দলীয় সদস্য পদ বাতিল করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা ৩ নেতার বহিষ্কার এবং একজনের সদস্য পদ বাতিলের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:৩৬
প্রিন্ট করুন printer

কুমিল্লার লাকসামে তুলার কারখানা থেকে অগ্নিকাণ্ড

লাকসাম প্রতিনিধি

কুমিল্লার লাকসামে তুলার কারখানা থেকে অগ্নিকাণ্ড

কুমিল্লার লাকসামে অগ্নিকাণ্ডে তিনটি দোকান পুড়ে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে বলে দাবি করেছেন ব্যবসায়ীরা। বুধবার (২৭ জানুয়ারি) রাতে পৌরসভার রাজঘাট এলাকায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রাত সাড়ে ৮টার দিকে আব্দুল কুদ্দুসের তুলার কারখানায় বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তের মধ্যে আগুন পার্শ্ববর্তী আজাদ মিয়ার জেনারেটর ও ইলেকট্রিক দোকান, ফয়সাল আহমেদের ফয়সাল ক্রোকারিজ দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিক আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। পরে লাকসাম ফায়ার স্টেশনের একটি ইউনিট এসে আগুন নেভায়।

লাকসাম ফায়ার স্টেশন ও সিভিল সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন জানান, আগুন লাগার খবর শুনে কিছুক্ষণের মধ্যে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভাতে সক্ষম হই। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে তার ধারনা। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:২৪
প্রিন্ট করুন printer

শেরপুরে শিমের কেজি ৫ টাকা

শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুরে শিমের কেজি ৫ টাকা

শেরপুরে শীতকালীন ফসল শিমের কেজি এখন মাত্র ৫ টাকা। শেরপুরের চরাঞ্চল ও সীমান্ত এলাকাজুড়ে এই শিমের ব্যাপক ফলন হয়েছে বলে জানিয়েছেন চাষিরা।

উৎপাদক পর্যায়ে শিম প্রতিকেজি এখন বিক্রি হচ্ছে ৪/৫ টাকায়। পাইকারি পর্যায়ে বিক্রি হচ্ছে ৬/৭ টাকা। খুচরা পর্যায়ে ১০ টাকাতেই মিলছে শিম। 

তাছাড়া অন্যান্য সবজি কপি, বেগুন, লাউ, কাঁচা মরিচ, আলুর দামও কমেছে ব্যাপক হারে। বাজার গুলোতে সবজি এখন ভরপুর।

চরাঞ্চলের ঈলশা এলাকা সবজি উৎপাদক সমেজ উদ্দিন জানিয়েছেন, প্রথম প্রথম একটু ভালো দামে সবজি বিক্রি করা গেলেও এখন সবজি পাইকাররা নিতেও চায় না। দামও কম। এত টাকা খরচ ও পরিশ্রম করে করে সবজি উৎপাদন করে এখন বিপদে পড়েছি। লাভ তো দূরের কথা।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:২৪
প্রিন্ট করুন printer

শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থীদের পাশে ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি

অনলাইন ডেস্ক

শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থীদের পাশে ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি

সাড়া জাগানো মানবিক সংগঠন ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা মানবিকতা নিয়ে শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবীরা সাতটি ধাপে কুমিল্লার লাকসাম ও মনোহরগঞ্জে ৮টি এতিমখানার শিক্ষার্থীদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন।

এছাড়াও সমাজের গরীব ও অসহায় শীতার্ত মানুষের মধ্যে সংগঠনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচির সার্বিক তত্ত্বাবধানে রয়েছেন সংগঠনের সভাপতি মো. ফয়সাল হোসেন বাপ্পি, সহ-সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল কাইয়ূম, দপ্তর সম্পাদক রকিবুল হাসান শান্ত, প্রচার সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সুজন, নাথেরপেটুয়া শাখার সভাপতি মামুন মিজান, প্রচার সম্পাদক জোবায়ের হোসেন, নরপাটি শাখার সভাপতি রাশেদ। কর্মসূচি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করছেন সংগঠনের নির্বাহী সদস্য শাহাদাৎ হোসেন, মাইনুল ইসলাম রাসেল, জোবায়ের আহমেদ জীবন, ইস্রাফিল আমিন, স্বাধীন, রশিদ ইকবাল, ইব্রাহিম হোসেন, মাসুম, সাগর, মাসুম খান, মোকসেদ আলমসহ প্রমুখ।

সংগঠনের সভাপতি মো. ফয়সাল হোসেন বাপ্পি জানান, ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা মানবিকতা নিয়ে মানুষের কল্যাণে নিবেদিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।  

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:১২
প্রিন্ট করুন printer

শ্রীমঙ্গলে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি :

শ্রীমঙ্গলে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে ৬৬ হাজার ১৮৯ পরিবারকে জমি ও ঘর প্রদান এবং ৩ হাজার ৭১৫ পরিবারকে জমিসহ ব্যারাকে পুর্নবাসন করায় মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে আনন্দ মিছিল করেছে পৌর ছাত্রলীগ।

মিছিলটি বুধবার বিকেলে শহরের কলেজ সড়ক থেকে শুরু হয়ে সারা শহর ঘুরে চৌমুহনাতে এসে শেষ হয়। পরে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ছালিক আহমেদ, শ্রীমঙ্গল পৌর যুবলীগের সভাপতি আকবর হোসেন শাহীন, সহ-সভাপতি ইমাম হোসেন সোহেল, সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমেদ চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক শের জাহান আলী সেজু, কোষাধ্যক্ষ মনির মিয়া, শ্রীমঙ্গল পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) কছরুল আহমেদ কয়েস, সাধারণ সম্পাদক আবেদ হোসেন, সাবেক কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সাবের আহমেদ, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মসাহিদ আহমেদ, ভুনবীর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি বেলাল আহমেদ, ছাত্রলীগকর্মী সাইফুল, জাবেদ, রুমন আহমেদ, তছলিম আহমেদ, ইদ্রিস আলী, জাবেদ, ইমরান ও শিমুল প্রমুখ।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর