শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ এপ্রিল, ২০২১ ২২:৩৬
প্রিন্ট করুন printer

ভূরুঙ্গামারীতে মাদরাসাছাত্রকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

ভূরুঙ্গামারীতে মাদরাসাছাত্রকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় গত দুই মাস আগে এক মাদরাসাছাত্রকে মারধর ও নির্যাতন করার ভিডিও সম্প্রতি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। গতকাল সোমবার ফেসবুকে এমডি লাভলু মিয়া নামে এক ফেসবুক আইডি থেকে প্রায় দেড় মিনিটের একটি ভিডিও ক্লিপ আপলোড করা হয়।

এরপর সোমবার রাত ১১টার দিকে ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহাঙ্গীর হোসেন এবং থানার ওসি আলমগীর হোসেনসহ একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখানে যান। সেখানে গিয়ে তারা পাথরডুবি কিসমত কুলসুম মাদরাসার তৃতীয় জামায়াতের ছাত্র লাল মিয়া এবং তার পিতা মোতালেব হোসেনের জবানবন্দি নেন।

এসময় অভিযুক্ত বাংলা বিষয়ের শিক্ষক আবু সাঈদকে পাওয়া যায়নি। পরে আদালত মাদরাসা সংশ্লিষ্টদের সাথে ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলেন। 

আজ মঙ্গলবার থানার ওসি মো. আলমগীর বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে শিক্ষার্থী লাল মিয়া বলেছে দুই মাস আগে তাকে শিক্ষক মো. আবু সাঈদ মারপিট করেন। বিষয়টি ভয়ে কাউকে সে জানায়নি। পিতা মোতালেব হোসেনসহ শিক্ষক এবং এলাকাবাসী জানান, তারাও ঘটনা জানতেন না এবং ফেসবুকে আপলোড করা ভিডিও দেখে জানতে পান।

তিনি আরও বলেন, ওই শিক্ষক মো. আবু সাঈদকে খোঁজা হচ্ছে। তাকে পাওয়া গেলে ওই শিক্ষার্থীকে মারধর করার বিষয়টি আরও পরিষ্কার হবে। এরপর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শিক্ষার্থী লাল মিয়ার বাবা মোতালেব মিয়া জানান, বাড়ির কাজ যেটি দেয়া ছিল তা না দিয়ে অন্যটি দেয়ায় তাকে তার ওই শিক্ষক পিটিয়েছেন বলে তার ছেলে লাল মিয়া তাকে জানায়।

জানা গেছে, অভিযুক্ত শিক্ষক উপজেলার পাথরডুবি বাজারের হাবিবুর রহমানের ছেলে। তিনি গত দেড় বছর যাবত পাথরডুবি কিসমত কুলসুম মাদরাসায় শিক্ষকতা করে আসছেন। তবে ঘটনা জানার পর ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ সূত্র জানায়। 

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর