শিরোনাম
প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৩৬
আপডেট : ১৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৩৯
প্রিন্ট করুন printer

ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খান আর নেই

অনলাইন ডেস্ক

ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খান আর নেই
ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের প্রবাদপ্রতিম শিল্পী ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খান। ফাইল ছবি

চলে গেলেন ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের প্রবাদপ্রতিম শিল্পী ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খান। আজ রবিবার দুপুরে মুম্বাইয়ে নিজের বাসভবনেই মৃত্যু হয় কিংবদন্তীর। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর। তার পুত্রবধূ নম্রতা গুপ্তা খান সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

তিনি বলেন, ‘আজ সকালে উনি সুস্থই ছিলেন। আমাদের বাড়িতে ২৪ ঘণ্টার জন্য একজন নার্স থাকেন, থেরাপি চলবার সময় উনি বমি করেন, আমি ছুটে যাই..চিকিৎসক আসার পর ওনাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন’।

মার্চ মাসেই ৯০-এ পা দেওয়ার কথা ছিল বর্ষীয়ান শিল্পীর, তেমন কোনও শারীরিক সমস্যাও ছিল না। এদিন সান্তাক্রুজ কবরস্থানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। 

১৯৩১ সালের ৩ মার্চ উত্তরপ্রদেশের বদাউনে জন্মে ছিলেন ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খান। রামপুর সাহাসন ঘরানার প্রতিষ্ঠানা ওস্তাদ ইনায়াত হুসেন খানের কন্যা সবরি বেগম ও ওস্তাদ মুরাগ বক্সের পুত্র ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খান। ছোট বয়স থেকেই সংগীতের পরিবেশেই মানুষ হন তিনি। বাবাই ছিলেন গুলাম মুস্তাফা খানের প্রথম গুরু, পরবর্তীতে তুতো দাদা ওস্তাদ নিসার হুসেন খানের কাছেও তালিম নেন।

মৃণাল সেনের ভুবন সোম ছবির সঙ্গে হিন্দি সিনেমার জগতে পা রাখেন তিনি। ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের এই কিংবদন্তি শিল্পীকে ১৯৯১ সালে পদ্মশ্রী, ২০০৬ সালে পদ্মবিভূষণ সম্মানে ভূষিত করে ভারত সরকার। ২০০৩ সালে সংগীত-নাটক অ্যাকাডেমি পুরস্কার পান ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খান। 

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৮:৩১
প্রিন্ট করুন printer

কঙ্গনা কাণ্ডে হৃত্বিককে ডেকে পাঠাল পুলিশ

অনলাইন ডেস্ক

কঙ্গনা কাণ্ডে হৃত্বিককে ডেকে পাঠাল পুলিশ
ফাইল ছবি

২০১৬ আসলে কঙ্গনার বিরুদ্ধে মামলা করেন হৃত্বিক রোশন। নেপথ্যে ছিল কিছু ই-মেইল। সেই মামলায় এবার হৃত্বিককে ডেকে পাঠাল মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখা।

২০১৬ সালে হৃত্বিক অভিযোগ করেছিলেন, তার নামে ভুয়া একাউন্ট খুলে অন্য কেউ কঙ্গনাকে ই-মেইল করেছেন। তিনি এসবের কিছুই জানেন না। যদিও কঙ্গনা দাবি করেন, ওই ই-মেইল আইডি এক সময় তাকে দিয়েছিলেন খোদ হৃত্বিক। আর তা থেকেই ২০১৪ সাল পর্যন্ত তার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তিনি। ২০১৩-১৪ সালেই সেই ইমেলগুলো করা হয়েছিল। 

২০১০ সালে ‘কাইটস’ এবং ২০১৩ সালে ‘ক্রিশ-৩’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন তারা। কঙ্গনা একাধিকবার দাবি করেছিলেন, হৃত্বিকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল তার। অবশ্য সেই কথা মানেননি হৃত্বিক। ২০১৬ সালে হৃত্বিককে একটি সাক্ষাৎকারে ‘‌সিলি এক্স’‌ (‌সাবেক বোকা)‌ বলেন কঙ্গনা। 

এরপরই নায়িকাকে আইনি নোটিস পাঠান হৃত্বিক। তিনি কঙ্গনার সঙ্গে সম্পর্ক থাকার কথাও অস্বীকার করেন। অভিযোগ করেন, কঙ্গনা তাকে অসংখ্য উল্টোপাল্টা মেইল করেছে। ২০১৬ সালে তদন্তের জন্য হৃত্বিকের ল্যাপটপ এবং মোবাইল খতিয়ে দেখে সাইবার দমন শাখা।
 
হৃত্বিকের আইনজীবী মহেশ জেঠমালানি জানান, এই মামলাটি খতিয়ে দেখা হোক। তারপরই গত বছর ডিসেম্বরে মামলাটি ক্রাইম ইন্টেলিজেন্স ইউনিটে নিয়ে আসা হয়। আগে মুম্বাইয়ের সাইবার সেলের অধীনে ছিল মামলাটি। 


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৫:৪৩
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৫:৪৬
প্রিন্ট করুন printer

ক্যান্সার আক্রান্ত রাখীর মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন সালমান

অনলাইন ডেস্ক

ক্যান্সার আক্রান্ত রাখীর মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন সালমান

বলিউডের দাবাং খ্যাত নায়ক সালমান খানের নামে বদনাম যেমন রয়েছে, তেমনি রয়েছে সুনামও। তার দিলদরিয়া হওয়ার ঘটনা সবাই প্রায় জানেন। এবার অভিনেত্রী রাখী সাওয়ান্তের মায়ের চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্য করলেন সালমান খান ও তার ভাই সোহেল খান।

রাখীর মা ক্যান্সারে আক্রান্ত। প্রায় ৪ বারের মতো কেমো থেরাপি হয়েছে তার। চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন প্রচুর অর্থ। রাখী আগেই জানিয়েছেন, মায়ের চিকিৎসা করার জন্যই বিগবসে এসেছিলেন তিনি। বিগবস থেকে পাওয়া অর্থেই মায়ের চিকিৎসা করবেন।

একথা শুনেই সালমান এগিয়ে এলেন সাহায্য করতে। সালমান এবং সোহেলের এগিয়ে আসার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন রাখীর মা।

রাখী জানান, গোটা বিগবসের জার্নি নিয়ে আমি দারুণ খুশি। শেষ পর্যন্ত কেন আমি থাকিনি, কেন আমি জিতলাম না, তা নিয়ে একটুও দুঃখ নেই আমার। কারণ, আমার যতটা টাকা প্রয়োজন ছিল, ততটা আমি পেয়ে গিয়েছি।

রাখী আরও জানিয়েছেন, আসলে আমার মা, আমার কাছে গোটা বিশ্ব। মাকে প্রাণে বাঁচাতে হবে। বিগবস থেকে পাওয়া এই ১৪ লাখ টাকা আমার মায়ের কেমো থেরাপিতে লেগে যাবে। এটাই আমার কাছে সবচেয়ে বড় পুরস্কার।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০১:৪১
প্রিন্ট করুন printer

ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি লাভলু, সম্পাদক সাগর

অনলাইন ডেস্ক

ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি লাভলু, সম্পাদক সাগর
সভাপতি সালাহউদ্দিন লাভলু (বাঁয়ে) ও সাধারণ সম্পাদক এস এম কামরুজ্জামান সাগর।

ছোট পর্দার নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ডের নির্বাচনে সভাপতি পদে আবারও নির্বাচিত হয়েছেন অভিনেতা ও নির্মাতা সালাহউদ্দিন লাভলু। আর প্রথমবারের মতো সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন নির্মাতা এস এম কামরুজ্জামান সাগর।

শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনে (বিএফডিসি) সংগঠনটির ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। পরে এদিন রাতেই ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

ডিরেক্টরস গিল্ডের এবারের নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ছিল ৩৯৬ জন। এর মধ্যে ১২টি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোট ৩৪ জন নির্মাতা। বিজয়ীরা আগামী দুই বছরের জন্য সংগঠনটির নেতৃত্ব দেবেন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:৩৪
প্রিন্ট করুন printer

১৯ মার্চ মুক্তি পাচ্ছে জয়ার ‘অলাতচক্র’

অনলাইন ডেস্ক

১৯ মার্চ মুক্তি পাচ্ছে জয়ার ‘অলাতচক্র’
জয়া আহসান

আগামী ১৯ মার্চ মুক্তি পাচ্ছে বাংলা ভাষায় প্রথম থ্রিডি চলচ্চিত্র ‘অলাতচক্র’। সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। সরকারি অনুদানের নির্মিত ‘অলাতচক্র’ সিনেমার টিজার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন পরিচালক হাবিবুর রহমান।

ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, “শুভমুক্তি ১৯ মার্চ, ২০২১। মহান মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পূর্তির এই মাহেন্দ্রক্ষণে মুক্তি পেতে যাচ্ছে, মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে আহমদ ছফার উপন্যাস অবলম্বনে; বাংলা ভাষায় নির্মিত প্রথম থ্রিডি চলচ্চিত্র ‘অলাতচক্র’। ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি’। ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি।”

‘অলাতচক্র’ উপন্যাসে দানিয়েলের জবানিতে নিজেকেই তুলে ধরেছেন লেখক আহমদ ছফা। নিজের প্রেমিকারূপে সৃষ্টি করেছেন তায়েবা চরিত্রটি। যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। আর দানিয়েল চরিত্রে আছেন আহমেদ রুবেল। ১৯৮৫ সালে প্রকাশিত হয় মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘অলাতচক্র’।

সিনেমায় জয়া-রুবেল ছাড়াও অন্যান্য চরিত্রে আছেন মাহতাব হাসান, আজাদ আবুল কালাম, শিল্পী সরকার অপু, শফিউল আলম বাবু, নুসরাত জাহান জেরী, সৈয়দ মোশাররফ প্রমুখ।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৬:৩৬
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:২৭
প্রিন্ট করুন printer

আমাকে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়: বুবলী

অনলাইন প্রতিবেদক

আমাকে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়: বুবলী
শবনম ইয়াসমিন বুবলী

চিত্রনায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলীকে বৃহস্পতিবার রাতে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যা চেষ্টা চালানো হয়েছে। অন্তত তৃতীয়বারের মতো গাড়ি দিয়ে সরাসরি তার গাড়িকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন নায়িকা।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে বুবলী বলেন, 'কাল রাতে (বৃহস্পতিবার) আমি বাড়ি ফিরছিলাম। বলতে গেলে সতর্কভাবেই বাড়ি ফিরছিলাম, যেই বাড়ির রাস্তায় ঢুকেছি অমনি মনে হলো একটা থেমে থাকা গাড়ি আমার গাড়িকে আঘাত করার জন্য তীব্রবেগে ছুটে আসে। অবস্থা বুঝে আমার চালক কঠিনভাবে ব্রেক কষে ধরেন। জাস্ট ভাবতে পারছিলাম না কী হতে যাচ্ছিল। এর আগেও গাড়ি দিয়ে দুইবার একই ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করা হয়। দুইদিন আগে একবার আর করোনার মহামারীর কিছুদিন আগে একবার। সেইম ঘটনাই ঘটেছিল। কাল রাতের ঘটনায় নিশ্চিত হলাম, যদিও আমি আগে থেকেই টের পাচ্ছিলাম।'

বুবলী আরও বলেন, 'বারবার আমার সঙ্গে এই ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে। আমি বুঝতে পারছি না কেন আমার সঙ্গে এরকমটা ঘটছে, তবে এতোটুকু বুঝতে পারছি কেউ আমাকে মারার চেষ্টা করছে। শুধু গাড়ি দিয়ে নয়, নানাভাবেই এই চেষ্টা চালানো হচ্ছে। আপনার সঙ্গে যখন একটা ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে তখন আপনি ফিল করতে পারবেন। এর আগে আমি বাসায় চিন্তা করবে ভেবে বলিনি। কিন্তু কাল রাতে আমি বলতে বাধ্য হয়েছি- কেননা স্বাভাবিক থাকতে পারছিলাম না।' 

চিত্রনায়িকা বলেন, 'আমি যদি আজ এটা না বলি- তাহলে দেখা গেল গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা গেলাম- সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু বলে চালিয়ে দেয়া হবে। এর পেছনে যে একটা সুক্ষ্ম ষড়যন্ত্র ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত রয়েছে বা ছিল তা কেউ জানতে পারতো না। এজন্য ভাবলাম বিষয়টা সকলকে জানানো দরকার। এজন্য ফেসবুকে লিখেছি। আমার সাথে যা ঘটেছে সেই অবস্থার বর্ণনা হয়তো আমি তুলে ধরতে পারিনি। কিন্তু ফেসবুকে যা লিখেছি তারচেয়েও কয়েকগুণ ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটেছে আমার সঙ্গে।'

বুবলী আইনগত ব্যবস্থা নেবেন জানিয়ে বলেন, 'যারাই এসব ন্যাক্কার জনক অপরাধের সাথে জড়িত থাকবেন তারাও নিশ্চই বার বার সুযোগের অপেক্ষায় থাকবেন। কিন্তু মনে রাখবেন কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন, আর আল্লাহ তো একজন আছেন যিনি সবই দেখেন। শিগগিরই আমি ব্যবস্থা নিবো এ ব্যাপারে। দোআ করবেন আমার জন্য।'

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর