শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০১৪ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৯ নভেম্বর, ২০১৪ ০০:০০

দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্যের ডাক মান্নার

দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্যের ডাক মান্নার

দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করতে জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। গতকাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নাগরিক ঐক্য আয়োজিত দুর্নীতিবিরোধী অবস্থান কর্মসূচিতে তিনি এ আহ্বান জানান। কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করেন ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ, কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফর উল্লাহ চৌধুরী, সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক, অধ্যাপক আসিফ নজরুল, স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন, সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রুহিন হোসেন প্রিন্স, বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) এম এ মান্নানসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। দুর্নীতিবিরোধী এ অবস্থান কর্মসূচি সমাবেশে রূপ নেয়।
মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে হলে নাকি পুলিশের অনুমতি লাগে! আজকাল দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলতেও পুলিশের অনুমতি লাগে। পুলিশ বলছে উপরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে। উপর যে কত উপরে তা আর খুঁজে পাওয়া যায় না। রাজনীতিকে যারা কলুষিত করেন তারাও দুর্নীতিবাজ।
ডা. জাফর উল্লাহ চৌধুরী বলেন, যে পুলিশ মানুষকে রাস্তা পার হওয়া শেখায় সেই পুলিশ শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে অনুমতি দেয় না। দেশে গণতন্ত্রের নামে ভাঁওতাবাজি করা হয়। এখানে গণতন্ত্রের জন্য নির্বাচন হয় না। সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, স্বাধীনতার পর থেকেই দুর্নীতির মহরত শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের এক ইঞ্চি মাটি খুঁজে পাওয়া যাবে না যেখানে দুর্নীতি হয় না। আমাদের সব উন্নয়ন দুর্নীতির কারণে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ বলেন, এমন কোনো জায়গা নেই যেখানে টাকা ছাড়া কাজ হয়। যে স্বপ্ন নিয়ে মুক্তিযোদ্ধারা দেশ স্বাধীন করেছিলেন তা নষ্ট হয়ে গেছে। স্বাধীনতার পর যাদের কাছে সবচেয়ে বেশি প্রত্যাশা ছিল জনগণ তাদের কাছেই বেশি আঘাত পেয়েছে। যারা দুর্নীতিবাজ সচিবদের প্রশ্রয় দিচ্ছেন তাদের খুঁজে বের করতে হবে। যারা রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে লুটপাট করছেন তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। ড. শাহদীন মালিক বলেন, ‘এই দেশে পানি পেতেও ঘুষ দিতে হয়। আমরা বাংলাদেশকে কোথায় নিয়ে যাচ্ছি? সব প্রতিষ্ঠান এখন দুর্নীতির কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। আমাদের সবই আছে কাগজে কলমে।’
অধ্যাপক আসিফ নজরুল বলেন, সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতি প্রবেশ করেছে। সার্টিফিকেটে দুর্নীতি, প্রশ্নপত্রে দুর্নীতি, নির্বাচনী দুর্নীতি নতুন মাত্রা যোগ করেছে। দুদক এখন দুর্নীতি প্রসারে কাজ করছে। একদল ক্ষমতায় এলে অন্য দলের দুর্নীতির বিচার শুরু করে।
 


আপনার মন্তব্য

Bangladesh Pratidin

Bangladesh Pratidin Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম,

নির্বাহী সম্পাদক : পীর হাবিবুর রহমান । ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত। ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫। ই-মেইল : [email protected] , [email protected]

Copyright © 2015-2020 bd-pratidin.com