শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:১৬

স্বপ্নের মতোই প্রথম দিন

শততম টেস্ট

ক্রীড়া প্রতিবেদক

স্বপ্নের মতোই প্রথম দিন

একপ্রান্ত থেকে একের পর এক উইকেট পড়ে যাচ্ছে, আরেকপ্রান্তে শক্ত হাতে ব্যাট করছেন দিনেশ চন্ডিমাল! একাই যেন পুরো শ্রীলঙ্কার ভারটা কাঁধে তুলে নিয়েছেন তিনি। গতকাল বাংলাদেশের বোলাররা অসাধারণ বোলিং করলেও কেবল এই চন্ডিমালকেই বোকা বানাতে পারেননি। তবে চন্ডিমালের ইনিংসটা বাদ দিলে লঙ্কার স্কোর বোর্ডটা ধু ধু করছে! প্রথম দিন শেষে শ্রীলঙ্কা করেছে ২৩৮ রান, তার মধ্যে চন্ডিমাল একাই ৮৬! এখনো অপরাজিত রয়েছেন। গতকাল সারা দিন  বাংলাদেশ দুর্দান্ত বোলিং করলেও শেষ পর্যন্ত গলার কাঁটা হয়ে রইলেন এই চন্ডিমাল। সব কিছু মিলিয়ে শততম টেস্টের প্রথম দিনটা কিন্তু বাংলাদেশেরই। গতকাল শুরু থেকেই লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের ওপর আধিপত্য বিস্তার করে বাংলাদেশের বোলাররা। প্রথম তিন ওভারে তিন মেডেন। টস হারায় মুশফিকের মনে যে কষ্ট ছিল তাণ্ডবে বোলিং করে তা দূর করে দেন বোলাররা। অন্যদিকে টস জয়টা হয়তো সৌভাগ্যের ছিল লঙ্কানদের জন্য! সে কারণেই কিনা অপয়া-১৩তে প্রথম উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। এরপর ২৪ রানে দ্বিতীয় উইকেট, ৩৫ রানে তৃতীয় উইকেট পড়ে যায়। শ্রীলঙ্কা চতুর্থ হারায় ৭০ রানেই। প্রথম সেশনেই যেন ব্যাকফুটে চলে যায় হেরাথবাহিনী। এক সময় মনে হচ্ছিল শততম টেস্টে বাংলাদেশের বোলাররা হয়তো লঙ্কানদের একশ রানের মধ্যে গুটিয়ে দেবে! কিন্তু চার নম্বরে ব্যাট করতে নামা চন্ডিমাল রুখে দাঁড়ান। শেষ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কাকে ভরসা দিচ্ছেন এই ব্যাটসম্যানই। তবে কাল বার বার সৌভাগ্যের ছোঁয়া পেয়েছেন চন্ডিমাল! এই লঙ্কান ব্যাটসম্যান ৩৯ রানের মাথায় আউট হয়েছিলেন! সাকিব আল হাসানের বলে লেগ বিফোর হয়ে যান। কিন্তু রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান। ৩৩ রানে একবার বেঁচে গিয়েছিলেন। একটুর জন্য সাকিবের থ্রো স্ট্যাম্পে লাগেনি। তাইজুলের বলেও একটা সুযোগ পেয়েছেন। ৪৬ রানের মাথায় চন্ডিমাল ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন। ফাইন লেগে দারুণ ক্যাচটাও লুফে নিয়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু সেবারও বেঁচে যান। বার বার নতুন জীবন পেয়ে শেষ পর্যন্ত অপরাজিতই থাকেন চন্ডিমাল। অষ্টম উইকেটে অধিনায়ক হেরাথের সঙ্গে গড়েছেন ৪৩ রানের জুটি। বাংলাদেশের বোলারদের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছেন চন্ডিমাল।


আপনার মন্তব্য