শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৭ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ মে, ২০১৯ ২৩:২৫

মোদির শপথ বৃহস্পতিবার

গৌতম লাহিড়ী, নয়াদিল্লি

মোদির শপথ বৃহস্পতিবার

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয়বার শপথগ্রহণ করবেন নরেন্দ্র মোদি। এ শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে বিদেশি রাষ্ট্রের প্রধান ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মোজাম্মেল হক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিনিধিত্ব করবেন। গতকাল পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান টেলিফোনে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে কথা বলেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ কথা জানালেও এটা নিশ্চিত করেননি পাকিস্তান থেকে কোনো প্রতিনিধি আসছেন কিনা। ২০১৪ সালে মোদির প্রথমবার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের সময় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাপান সফরে ছিলেন। এবারও তিনি জাপান সফরে যাবেন। গতবার জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তিনিও অন্য বিশেষ কাজে ব্যস্ত থাকায় সিনিয়র মন্ত্রী মোজাম্মেল হক আসতে পারেন বলে কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে। রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং তার মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ করাবেন। এ শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান হবে রাষ্ট্রপতি ভবনে। অনুষ্ঠানে দক্ষিণ এশিয়া ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন।

 প্রধানমন্ত্রী মোদি গতকাল আহমেদাবাদে তার মা’র সঙ্গে দেখা করতে গেছেন। আজ তিনি তার নির্বাচনী কেন্দ্র বারানসিতে যাবেন। এর আগে বিভিন্ন রাষ্ট্রের প্রধান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী মোদিকে টেলিফোন করে অভিনন্দন জানান। প্রধানমন্ত্রী মোদি পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীকে টেলিফোনে ধন্যবাদ জানান তাকে অভিনন্দন জানানোর জন্য। তিনি স্মরণ করিয়ে দেন এর আগে যখন কথা হয়েছিল তখন যৌথভাবে দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রস্তাব দেন। তিনি এও বলেন, ভারতের নীতি প্রতিবেশী প্রথম। এই নীতি বহাল থাকবে। তিনি প্রস্তাব দেন এ অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য সন্ত্রাসমুক্ত পরিবেশ তৈরি করা প্রয়োজন। যাতে দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তি ও সমৃদ্ধি গড়ে তোলা যায়। শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি সিরিসেনা নিজেই জানিয়েছেন তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসছেন।


আপনার মন্তব্য