Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ আগস্ট, ২০১৯ ২৩:৩১

ডেঙ্গুতে এক দিনে গেল ৮ প্রাণ

২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১৬১৫ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক

ডেঙ্গুতে এক দিনে গেল ৮ প্রাণ

রক্তের ক্যান্সারে আক্রান্ত নারায়ণগঞ্জের ফাতেমা আক্তার। প্রতিনিয়ত চলছিল তার বেঁচে থাকার লড়াই। দুরারোগ্য ক্যান্সারের সঙ্গে পাল্লা দিলেও ডেঙ্গুর কাছে হারলেন তিনি। গতকাল রাজধানীর মিটফোর্ড হাসপাতালে বেলা দেড়টার দিকে মারা যান তিনি। সারা দেশে গতকাল ফাতেমাসহ আটজন মারা গেছেন। প্রতিদিন বাড়ছে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্তের সংখ্যা। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬১৫ জন। ঢাকা শহরের হাসপাতালে (সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে) ভর্তি হয়েছেন ৭৫৭ জন। ঢাকার বাইরে বিভিন্ন বিভাগের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৮৫৮ জন। রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালের মধ্যে ঢাকা মেডিকেলে ১২২ জন, মিটফোর্ডে ৮১ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ২৪ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ৭৫ জন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪০ জন, পুলিশ হাসপাতাল রাজারবাগে ১৮ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৭৩ জন, বিজিবি হাসপাতাল পিলখানা ঢাকায় ৫ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১৪ জন, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৫৪ জন, অন্যান্য সরকারি হাসপাতালে ২ জন ও বেসরকারি অন্যান্য হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ২৪৯ জন ভর্তি হয়েছেন।

বিভিন্ন বিভাগীয় শহরে মোট আক্রান্ত ৮৫৮ জনের মধ্যে ঢাকা শহর ব্যতীত ঢাকা বিভাগে ২১৯ জন, চট্টগ্রামে ১৫২ জন, খুলনায় ১৪৫ জন, রংপুরে ৩১ জন, রাজশাহীতে ৯৫ জন, বরিশালে ১৫৫ জন, সিলেটে ১৫ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ৪৬ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হন। আক্রান্তদের মধ্যে রাজধানীতে একজন মারা গেছেন। মিটফোর্ড হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোরশেদ রশীদ বলেন, গত রবিবার রাত নয়টার দিকে ফাতেমা আক্তার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তিনি ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে তিনি লিউকেমিয়া অর্থাৎ রক্তের ক্যান্সারের রোগী ছিলেন।

গতকাল বেলা দেড়টার দিকে তিনি মারা যান। বনশ্রীতে মাসরুফা (১০) নামে এক শিশু ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেছে। মাসরুফার বাবা মোহাম্মদ মোস্তফা বলেন, পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করার জন্য আমার স্ত্রী মাজেরা তিন কন্যা সন্তানকে নিয়ে ঠাকুরগাঁও থেকে ঢাকায় আসে। এখানে এসে মাসরুফা অসুস্থ হলে ১৪ আগস্ট চিকিৎসার জন্য রামপুরা বনশ্রীর অ্যাডভান্স হাসপাতালে নিয়ে যাই। হাসপাতালের চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে জানান, মেয়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত।

দুই দিনের ওষুধ দিয়ে গতকাল আবার হাসপাতালে নিয়ে আসতে বলেছিলেন। কিন্তু পুনরায় ডাক্তারের কাছে যাওয়ার আগেই গতকাল ভোর ৬টায় সে মারা যায়। এ ছাড়া ময়মনসিংহে তিনজন, ফরিদপুরে একজন, খুলনায় একজন এবং বরিশালে একজন ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেছেন। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে তিনজন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এর মধ্যে সেলিম হোসেনের (২৭) বাড়ি নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায়। এর আগে রবিবার সন্ধ্যায় আনোয়ার হোসেন ও সোমবার রাতে রাসেল মিয়া মারা গেছেন। নিহত আনোয়ার হোসেনের বাড়ি নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় এবং রাসেল মিয়ার বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়ায়। হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ণ মজুমদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ফরিদপুর : ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দেলোয়ার হোসেন (৪৫) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন। গতকাল বেলা সাড়ে ১০টার দিকে তিনি মারা যান। দেলোয়ার হোসেন সদর উপজেলার নর্থচ্যানেল ইউনিয়নের গোলডাঙ্গী গ্রামের সফিউদ্দিন আহমেদের ছেলে। তিনি ফরিদপুর শহরের পূর্বখাবাসপুর লঞ্চঘাট জামে মসজিদের খাদেম ছিলেন।

খুলনায় : ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে মিজানুর রহমান (৪২) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন। তিনি পেশায় সবজি বিক্রেতা ছিলেন। তার বাড়ি খুলনার রূপসা উপজেলার খাজাডাঙ্গা গ্রামে। গতকাল সকাল ৭টার দিকে তিনি মারা যান। খুমেক হাসপাতালের আবাসিক ফিজিশিয়ান (আরপি) ডা. শৈলেন্দ্রনাথ বিশ্বাস জানান, গত ১৫ আগস্ট মিজানুর রহমান ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এরপর হাসপাতালের বাথরুমে পড়ে গিয়ে তার মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়। পরে গতকাল সকালে তার মৃত্যু হয়। 

বরিশাল : বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুমাইয়া (১৮) নামে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালের আইসিইউ বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বেলা ২টায় তার মৃত্যু হয়। সুমাইয়া পটুয়াখালী জেলার দুমকী উপজেলার ফজলুল হকের মেয়ে।

দুই সিটি করপোরেশনের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা : রাজধানীর মহাখালীতে পারটেক্স গ্রুপের প্রধান কার্যালয় প্রাঙ্গণে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় প্রতিষ্ঠানটিকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার এ জরিমানা করেন।

দক্ষিণ সিটি করপোরেশন পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত রিয়েল এস্টেট প্রতিষ্ঠান ইস্টার্ন ভিউ এবং এস ফার্ম লিমিটেডসহ ৯টি ভবন মালিককে ২ লাখ ২৮ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করেছে। ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় এই জরিমানা করা হয়। গতকাল রাজধানীর নয়াপল্টন, সেগুনবাগিচা, তোপখানা, ধানমন্ডি, যাত্রাবাড়ী এলাকায় ডিএসসিসির ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দ এ অভিযান চালান।


আপনার মন্তব্য