শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ জানুয়ারি, ২০২০ ২৩:১৭

প্রচারে ঘাম ঝরাচ্ছেন প্রার্থীরা

গণজোয়ারে তারা আতঙ্কে : তাবিথ

নিজস্ব প্রতিবেদক

গণজোয়ারে তারা আতঙ্কে : তাবিথ

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বলেছেন, গণসংযোগে  গণজোয়ার দেখে আমার প্রধান প্রতিপক্ষ আতিকুল ইসলাম ভয় পেয়েছেন। আতঙ্কিত হয়ে তিনি মানসিকভাবে অশান্তিতে রয়েছেন। তাই সত্য ঘটনাকে বিএনপির নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষ বলে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছেন। তিনি বলেন, আমাদের ওপর হামলার বিষয়ে নির্বাচন কমিশন কী পদক্ষেপ নেয়, তা জানতে ৪৮ ঘণ্টা অপেক্ষা করব। গাবতলীতে হামলা নিয়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামের বক্তব্যের সমালোচনা করে গতকাল সকালে এক গণসংযোগে তাবিথ আউয়াল এসব কথা বলেন। সকাল সাড়ে ১০টায় উত্তর সিটির ৪৯ নম্বর ওয়ার্ডের হাজী ক্যাম্পের সামনে নির্বাচনী গণসংযোগ করেন তিনি। তাবিথ যখন হাজী ক্যাম্পের সামনে পথসভা করছিলেন, তখন সড়কের বিপরীত পাশে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীর জটলা বেঁধেছিল। দুই পক্ষ থেকেই স্লোগান দেওয়া হলেও অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেনি। এ সময় ধানের শীষের এই প্রার্থীর সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ পর্যায়ের নেতা জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, বিএনপি নেতাদের মধ্যে শামা ওবায়েদ, সাইফুল আলম নীরব, এস এম জাহাঙ্গীর, কলিমউদ্দিন আহমেদ মিলন, গফুর ভূঁইয়া, নজরুল ইসলাম আজাদ, ঐক্যফ্রন্টের দফতরপ্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, ৪৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন, ৪৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আলী আকবর, আলম মেম্বার, আকতার হোসেনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

ইসিতে তাবিথের অভিযোগ : তাবিথ আউয়ালের প্রচারণায় হামলার ঘটনায় নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে বিএনপি। গতকাল সকালে মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পক্ষে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর নেতৃত্বে লিখিত অভিযোগ দেন দলটির নেতারা। অভিযোগে ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে ৯ নম্বর ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থী মুজিব সারোয়ার মাসুমের প্রার্থিতা বাতিলের দাবি করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্মমহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ত্রাণ ও পুনর্বাসনবিষয়ক সহসম্পাদক শফিকুল হক মিলন।

মামলা নেয়নি পুলিশ : ঘটনার পর মঙ্গলবার রাতে দারুসসালাম থানায় মামলা দায়ের করার জন্য গেলেও তা গ্রহণ করেনি। মামলার বাদী আমজাদ হোসেন শাহাদাতকে দুই ঘণ্টা বসিয়ে রেখেও মামলা না নেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত কয়েক দফা পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও দারুসসালাম থানার ওসির সঙ্গে যোগাযোগ করে মামলা গ্রহণের অনুরোধ জানানো হলেও তা আমলে নেননি তারা।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর