শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৩০ জুন, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ জুন, ২০২০ ০০:১০

১৩ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার!

নিজস্ব প্রতিবেদক

লঞ্চডুবির ঘটনায় প্রায় ১৩ ঘণ্টা পর বুড়িগঙ্গা নদী থেকে একজনকে জীবিত উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা। গত রাত ১০টায় তাকে দুর্ঘটনাস্থলে ডুবে যাওয়া লঞ্চের ভিতরে অজ্ঞান অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে উপরে তোলার পর তার জ্ঞান ফেরে। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে চিকিৎসা দিতে স্প্রিডবোটে করে সদরঘাট টার্মিনালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাকে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম-পরিচয় জানা যায়নি। গতকাল বুড়িগঙ্গায় মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠপট্টি থেকে আসা ‘মর্নিং বার্ড’ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৩২ জনের লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস।

যখন টিউবের মাধ্যমে লঞ্চটি উপরে তোলার চেষ্টা করছিলেন এবং লঞ্চটির একাংশ উপরে উঠে আসছিল ঠিক তখনই ওই ব্যক্তি লঞ্চ থেকে বেরিয়ে আসেন। ডুবুরিরা তাৎক্ষণিকভাবে তাকে লাইফ জ্যাকেটে ঢেকে এবং শরীর ম্যাসেজ করে তার শরীর গরম করার চেষ্টা করেন। এরপর ওই ব্যক্তি চোখ  মেলে তাকান। 

কোস্টগার্ড ও নেভির কর্মকর্তারা জানান, তারা যখন উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিটিকে বিভিন্ন প্রশ্ন জিজ্ঞেস করছিলেন তিনি চোখের ইশারায় কথার জবাব  দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন। তবে দীর্ঘ সময় পানির নিচে আটকে থাকায় তার শরীরের তাপমাত্রা নেমে গিয়েছিল। পানির নিচে তলিয়ে গেলেও এ ব্যক্তি কীভাবে বেঁচে গেলেন তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছে। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি যেখানে আটকা পড়েছিলেন সেখানে হয়তো সেভাবে পানি প্রবেশ করেনি। রাতে যখন টিউবের মাধ্যমে বিশেষ প্রক্রিয়ায় লঞ্চটি তোলার চেষ্টা করা হচ্ছিল তখন লঞ্চটি সামান্য ভেসে ওঠার পর ওই ব্যক্তি নিজের প্রচেষ্টায়  বেরিয়ে আসেন এবং উদ্ধার কর্মীরা তাকে দেখতে  পেয়ে উদ্ধার করে নৌকায় তুলেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর