শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জুলাই, ২০২০ ০০:১২

করোনাভাইরাস

মারা গেলেন মেজর খালেদ ও অতিরিক্ত সচিব আমিনুল

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও এরশাদ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মেজর (অব.)  খালেদ আখতার ও অতিরিক্ত সচিব পদমর্যাদার বগুড়া পল্লী উন্নয়ন একাডেমির (আরডিএ) মহাপরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম।

গতকাল সকাল ৬টার দিকে সিএমএইচ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেজর (অব.) খালেদ আখতার মৃত্যুবরণ করেন। কয়েক দিন ধরে তাকে লাইফ সাপোর্টে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। বাদ আসর সেনানিবাসের মানিকদি কবরস্থানে তাকে দাফন করা  হয়। ১৯৯৬ সালে খালেদ আখতারকে এরশাদ তার ব্যক্তিগত সচিব হিসেবে নিয়োগ দেন। এরশাদের মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি এ পদে বহাল ছিলেন। পাশাপাশি তাকে পার্টির কোষাধ্যক্ষ ও প্রেসিডিয়াম মেম্বার করা হয়। এরশাদের মৃত্যুর পরে দলের নবম জাতীয় কাউন্সিলে তাকে প্রেসিডিয়াম সদস্য পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। জীবদ্দশায় এরশাদ তার সব সম্পত্তি ট্রাস্টের অধীনে দান করেন। এরশাদের মৃত্যুর পর ট্রাস্টের চেয়ারম্যান করা হয় খালেদ আখতারকে। এদিকে গতকাল সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আরডিএ মহাপরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম রাজশাহী মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তিনি ২৩ জুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। প্রথমে আরডিএর নিজের বাংলোতে আইসোলেশনে ছিলেন। পরে তাকে রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। ২৯ জুন থেকে তাকে আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। বিসিএস অষ্টম ব্যাচের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা আমিনুল নাটোর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সিরাজগঞ্জের জেলা প্রশাসক, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের স্থানীয় সরকার বিভাগের পরিচালক এবং রাজশাহী বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারের দায়িত্বে ছিলেন। তার দুই ছেলেও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর