শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ জুলাই, ২০২১ ২৩:০৮

আমলারা কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারেন না

-আবু আলম মো. শহীদ খান

আমলারা কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারেন না
Google News

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব আবু আলম মো. শহীদ খান বলেছেন, আমলারা যদি ভাবেন তারা সরকারকে ক্ষমতায় এনেছেন, তাহলে গণতন্ত্রের জন্য অশনিসংকেত। ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স অনুযায়ী সংসদ সদস্যরা সচিবদের ওপরেই আছেন। তা মনে রাখতে হবে। এখানে সন্দেহ করার সুযোগ নেই, বিভ্রান্তিও নেই।

বুধবার বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আবু আলম বলেন, যারা গণকর্মচারী তারা কাজ করেন রাষ্ট্রযন্ত্রের। তারা জনগণের বেতনভুক কর্মচারী। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই একটা আলোচনা ছিল যে রাজনীতি এখন আমলানির্ভর হয়ে পড়ছে। আগে বিভিন্ন জায়গায় বিচ্ছিন্নভাবে আলোচনা হলেও এখন জাতীয় সংসদে সিনিয়র রাজনীতিবিদরা এ নিয়ে আলোচনা করছেন। এখন সরকারকেই ঘটনার গভীরে যেতে হবে। গভীরে পর্যালোচনা করে দেখতে হবে যে সরকার আমলানির্ভর হয়ে পড়ছে কি না। অথবা সরকারের ওপর আমলাদের কর্তৃত্ব বেড়েছে কি না তা-ও গভীরভাবে ভাবতে হবে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সাবেক এই সচিব বলেন, সরকার কেন আমলানির্ভর হয়ে পড়বে? এ নিয়ে সরকারকে গভীরভাবে পর্যালোচনা করতে হবে। এ পরিস্থিতি উত্তরণের পথ সরকারকে বের করতে হবে। রাজনীতিবিদদের বের করতে হবে। আমলারা সরকার পরিচালনা করেন না, রাজনীতিবিদরাই করেন। আমলারা সরকারের নির্দেশে আইন অনুসারে কাজ করেন। গণকর্মচারী সরকারের নির্দেশ, সংবিধান এবং আইন অনুযায়ী কাজ করে। সংবিধানে আইন বিভাগ, শাসন বিভাগ ও বিচার বিভাগে কার দায়িত্ব কী পরিষ্কার বলা আছে। আমলাদের স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি আরও বলেন, এটা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ। ক্ষমতার উৎস জনগণ। এটা সব মহলকে মনে রাখতে হবে। কর্তৃত্ব করার সুযোগ নেই। জনগণ ও সংবিধান সে সুযোগ দেয়নি। এখন যে আলোচনা হচ্ছে- যদি কোনো আমলা ভেবে থাকেন তারাই কোনো দলকে ক্ষমতায় এনেছেন, তাহলে ভুল করছেন। আমলারা কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারেন না। তা তাদের দায়িত্ব নয়। যারা ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হবেন তাদের আইনগত সহযোগিতা করা আমলাদের দায়িত্ব।