শিরোনাম
বুধবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা

বাংলাদেশের পাশে মিয়ানমারের শহর বিদ্রোহীদের দখলে

প্রতিদিন ডেস্ক

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর হাত থেকে ভারত-বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী এবং ভৌগোলিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ একটি শহরের দখল নেওয়ার দাবি করেছে বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মি। সামরিক জান্তাবিরোধী বড় তিনটি বিদ্রোহী গোষ্ঠীর অন্যতম এই আরাকান আর্মি। তাদের দখলে যাওয়া শহরটির নাম পালেতোয়া। এটি চিন রাজ্যে অবস্থিত। খবর বিবিসি নিউজ।

এ গোষ্ঠীর টেলিগ্রাম চ্যানেলে জানানো হয়েছে, সমগ্র পালেতোয়া এলাকায় সামরিক বাহিনীর আর একটি ক্যাম্পও অবশিষ্ট নেই। যদিও সেনাবাহিনীর তরফে এখনো কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

অঞ্চলটি বাংলাদেশেরও নিকটবর্তী, দূরত্ব মাত্র ১৮ কিলোমিটার। সীমান্ত লাগোয়া পালেতোয়ায় ভারতের অর্থায়নে কোটি কোটি ডলারের উন্নয়ন প্রকল্প চলমান। দূরবর্তী অঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করতে সেখানে বিনিয়োগ করেছে ভারত। ফলে স্বাভাবিকভাবেই পালেতোয়ার ঘটনাপ্রবাহের দিকে দিল্লির তীক্ষè নজর থাকবে।

এখানকার কালাদান নদীর বন্দরটিও এখন আরাকান আর্মির নিয়ন্ত্রণে। ফলে ভারতীয় সীমান্তে যাতায়াতের সড়ক ও নৌ-পরিবহনের নিয়ন্ত্রণও এই বিদ্রোহী গোষ্ঠীর হাতে চলে গেল। সেই সঙ্গে সামরিক সরঞ্জামসহ একটা ঘাঁটি পেয়ে যাওয়ায় এখান থেকে রাখাইন রাজ্যে আরও আক্রমণ পরিচালনা করতে পারবে তারা। বিদ্রোহীদের কাছে রাখাইন রাজ্যের প্রধান শহরগুলোর যে কোনোটি হারানো জান্তার জন্য এক বড় আঘাত হবে। তেমনই একটি শহর কায়াকদো, যেটির মধ্য দিয়ে রাজ্যের রাজধানী সিতওয়ের সঙ্গে সারা দেশের যোগাযোগের মূল সড়ক পথটি গেছে। আরাকান আর্মি যাতে কায়াকদোর দিকে অগ্রসর হতে না পারে সেজন্য বিমান ও হেলিকপ্টারযোগে হামলা অব্যাহত রেখেছে সেনাবাহিনী।

সর্বশেষ খবর