Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:১৬

মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে ফিজিওথেরাপি

মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে ফিজিওথেরাপি

বিশ্ব ফিজিওথেরাপি দিবস আজ। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে এ দিনটি। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য— ‘মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে ফিজিওথেরাপি’। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, বিশ্বে প্রায় ৫৬ কোটি মানুষ মানসিক অসুস্থতায় আক্রান্ত। তার মধ্যে ৩০ কোটি মানুষ বিষণ্নতায় এবং ২৬ কোটি মানুষ উদ্বেগে ভোগে। এর এক তৃতীয়াংশ মানুষ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় বসবাস করে। ওয়ার্ল্ড কনফেডারেশন ফর ফিজিক্যাল থেরাপি (ডব্লিউসিপিটি) এর মতে ফিজিওথেরাপি শুধু শারীরিক অসুস্থতার চিকিৎসার ক্ষেত্রে নয়, মানসিক অসুস্থতার  চিকিৎসার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক নির্দেশিত কিছু থেরাপিউটিক এক্সারসাইজ বিশেষ করে বিষণ্নতা ও উদ্বেগজনিত মানসিক সমস্যায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাছাড়াও যখন একজন ব্যক্তি বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভোগেন তখন মানসিক চাপ বা উদ্বেগ বেড়ে যায়, যেমন একজন ব্যক্তি হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে তার শরীরের একপাশ প্যারালাইসিসে পরিণত হলো তখন রোগীটির শারীরিক অসুস্থতার পাশাপাশি মানসিক অসুস্থতাও দেখা দেয়, কারণ যে কিনা দুই দিন আগেও সুস্থ স্বাভাবিক জীবনযাপন করছিলেন কিন্তু বর্তমানে তার আক্রান্ত হাত-পায়ে কোনো শক্তি পাচ্ছে না, সে কি আবার আগের মতো সুস্থ হতে পারবে? এ ধরনের নানারকম মানসিক উদ্বেগে ভোগে, তেমনিভাবে কিছু রোগী আছেন যারা দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন ব্যথা-বেদনায় ভুগে থাকেন তখন তারাও মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে যে, তারা বোধহয় আর কখনো সুস্থ হবেন না, এ ধরনের বিষণ্নতায় ভুগে থাকে। এসব ক্ষেত্রে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার মাধ্যমে রোগী যখন ধীরে ধীরে সুস্থ হতে থাকে শারীরিক সুস্থতার পাশাপাশি মানসিকভাবে সুস্থতা লাভ করে তার ভিতর আসন্ন  ডিপ্রেশন বা বিষণ্নতা দূর হয়, তাই ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।

ডা. এম ইয়াছিন আলী ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞ ও চিফ কনসালট্যান্ট, ঢাকা সিটি ফিজিও-থেরাপি হাসপাতাল, ধানমন্ডি।


আপনার মন্তব্য