শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ মার্চ, ২০২০ ০৮:৪৬
আপডেট : ২৮ মার্চ, ২০২০ ০৮:৪৭

যে গ্রামের নামই ‘মুছে’ দিচ্ছে করোনাভাইরাস!

অনলাইন ডেস্ক

যে গ্রামের নামই ‘মুছে’ দিচ্ছে করোনাভাইরাস!

যে করোনা বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিচ্ছে, সেটা একটা ভাইরাস। আর এই ভাইরাসের ত্রাসে কাঁপছে আবার অন্য এক করোনা!

এই দুই করোনার নামই বিশ্বের সঙ্গে দু’রকম ভাবে জড়িয়ে রয়েছে। এক করোনা বিশ্বের কাছে এখন ত্রাস। আর দ্বিতীয় করোনা একটা ছোট্ট গ্রাম।

অস্ট্রিয়ার আল্পস পর্বতের পাদদেশে অবস্থিত এই ছোট্ট গ্রামটির নামও করোনা। সেন্ট করোনা।

আর এই নাম নিয়েই বেজায় সমস্যায় পড়েছেন গ্রামবাসীরা। গ্রামের নাম পরিবর্তনের কথাও ভাবছেন মেয়র মাইকেল গ্রুবের।
ভিয়েনা থেকে ১০০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত অস্ট্রিয়ার এই গ্রামের উপার্জনের মূল পথই হল পর্যটন।

দেশ-বিদেশ থেকে সারা বছরই পর্যটকেরা এই গ্রামে এসে হাজির হন। গ্রামে মাত্র ৪০০ পরিবারের বাস।

গ্রামের পর্যটন শিল্পের ম্যাসকট একটি পিঁপড়া। তার নামও করোনা। ম্যাসকটের ছবি ঐতিহ্যবাহী পোশাক এবং বিভিন্ন তথ্যে প্রদর্শিত হয়।

প্রথম প্রথম যখন করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হয়েছিল, সে সময় নামের সাদৃশ্য নিয়ে হাসাহাসিই করতেন গ্রামবাসীরা। কিন্তু পরে এর ভয়াবহতা তারা বুঝতে পারেন।

আর এখন বিশ্বব্যাপী যেভাবে তাণ্ডব চালাতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস, তাতে পর্যটন শিল্প নিয়েও উদ্বিগ্ন মেয়র মাইকেল গ্রুবের।

এক সাক্ষাত্কারে তিনি বলেছেন, “পর্যটকদের স্বাগত জানানোর জন্য আমাদের এবার হয়তো ম্যাসকটের নাম বদলে ফেলতে হবে।” কেন? করোনাভাইরাসের অভিশাপের কথা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত তার।

অস্ট্রিয়ায় এখনও পর্যন্ত ৪ হাজার আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের।

করোনা মোকাবেলায় ইতোমধ্যে সেনাবাহিনীকেও নামাতে হয়েছে সে দেশে। খাদ্যের যোগান, ওষুধপত্রের ব্যবস্থা সমস্ত সামলাচ্ছে সেনারা।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য